| 18 এপ্রিল 2024
Categories
প্রযুক্তি ও বিস্ময়

টুইটারের পাল্টা মেটা-র নতুন অ্যাপ থ্রেডস

আনুমানিক পঠনকাল: < 1 মিনিট

জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম টুইটারকে টেক্কা দিতে মেটা আনলো থ্রেডস অ্যাপ। আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড- দুই মাধ্যমেই সময়ের সঙ্গে সঙ্গে জনপ্রিয়তা বাড়ছে এই অ্যাপের। ৫ জুলাই লঞ্চ করার পর এরই মধ্যে থ্রেডসে ব্যবহারকারীর সংখ্যা চার কোটি ছাড়িয়েছে। উন্মুক্ত করার মাত্র ৪ ঘণ্টায় গ্রাহকের সংখ্যা দাঁড়ায় ৫০ লাখে আর মাত্র ৭ ঘণ্টায় সেটি দাঁড়ায় ১ কোটিতে। ঝড়ের গতিতে ব্যবহারকারী বাড়ছে এই অ্যাপের।


আরো পড়ুন:অবাঞ্চিত কল থেকে মুক্তি দিতে নতুন সুবিধা হোয়াটসঅ্যাপে


 

ইন্সটাগ্রাম টিমই এই অ্যাপ নির্মাণ করেছে। একজন ইউজারের ইন্সটাগ্রামে অ্যাকাউন্ট থাকলেই তিনি থ্রেডস অ্যাপে অ্যাকাউন্ট খুলে সাইন-ইন বা লগ-ইন করতে পারবেন। ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টের ক্রেডেন্সিয়াল দিয়েই সব কাজ করা যাবে। ইন্সটাগ্রামের ইউজার নেমই থাকবে থ্রেডসে। এমনকি ইউজারের ফলোয়ারদেরও স্থানান্তরিত করার সুবিধা রয়েছে। নিমেষের মধ্যে ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে থ্রেডসে অ্যাকাউন্ট খুলে নেওয়া যাবে। দ্রুততার সঙ্গে হবে কাজ। ফলে নতুন প্রজন্মের বেশ পছন্দ হয়েছে এই নতুন সোশ্যাল মিডিয়া মাধ্যম থ্রেডস অ্যাপ। 

কয়েকদিন আগেই টুইটারের বিকল্প অ্যাপ আনার ঘোষণা দিয়েছিল মেটা। থ্রেডসের অনেক বৈশিষ্ট্য টুইটারের মতোই। থ্রেডসে কোন পোস্ট ৫০০ বর্ণের বেশি হতে পারবে না বলে সীমা বেঁধে দেয়া আছে।  সেই সঙ্গে লিঙ্ক, ছবি, ভিডিও পোস্ট করা যাবে। ৫ মিনিটের ভিডিও পোস্ট করা যাবে থ্রেডস অ্যাপে। যদিও  থ্রেডস অ্যাপে থাকছে না টুইটারের মতো হ্যাশট্যাগ বা ট্রেন্ডিং পেইজ,নেই টুইটারের মতো ওয়েব ভার্সান সুবিধা। তারচেয়েও বড় সমস্যা হতে পারে থ্রেডস অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে চাইলে ইউজারকে তার ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টও ডিলিট করে দিতে হবে। 

বর্তমানে বিশ্বের শতাধিক দেশে থ্রেডস অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারছেন ব্যবহারকারীরা। তবে নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর উদ্বেগের কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দেশগুলোতে অ্যাপটি পাওয়া যাচ্ছে না।

 

 

 

সূত্র: সিএনএন,দ্য ভার্জ,ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

 

error: সর্বসত্ব সংরক্ষিত