| 27 মে 2024
Categories
কবিতা সাহিত্য

ফুয়াদ হাসানের কবিতা

আনুমানিক পঠনকাল: < 1 মিনিট
যাকে নিয়ে যাচ্ছ
 
 
যাকে নিয়ে যাচ্ছ
তাকে এভাবে দিও না কবর
এমন করে পুতে
রেখো না তার হিম নীরবতা
ঝরা বাহু হলুদ পাতারা
 
যাকে নিয়ে যাচ্ছ
তাকে এভাবে পুড়ে ফেলো না
ময়লা-পাহাড়ের মতো
জন্মদাগ থেকে
চলতি অপবাদ
 
যাকে নিয়ে যাচ্ছ
তাকে এভাবে দিও না কবর
 
পারলে তার অভিমানগুলোকে শুধু
এমন মাটি চাপা দিয়ে রেখো
 

আরো পড়ুন: হাসান ইমতিয়াজ এর তিনটি কবিতা


টুথব্রাশের সংসার
 
 
চারজনের একক পরিবার
লাল, গোলাপি, বেগুনি ও পেস্ট কালার
চব্বিশ ঘণ্টা স্নানঘরে
জড়াজড়ি করে ভিজে মরে
কেউ একজন ঘরে নেই আজ
সেদিন কারও ছিল না কোন কাজ
বাড়ির সকলে দলবেঁধে গিয়েছে বেড়াতে
অলস সময় কাটে রাতে বা প্রভাতে
অকারণে গোলাপির ভীষণ মনখারাপ
তাই লালটিরও বৃদ্ধি পেয়েছে রক্তচাপ
পেস্টরঙা পড়ে আছে টুথপেস্টহীন
জানি না হয়েছে আজ কতদিন
বোর্ডিংস্কুলে বাচ্চাব্রাশ – শুকিয়ে যাওয়া মন
দূরে বসে একা কাঁদে কালো নিমের মাজন
 
 
মুখ ও মুখোশ
 
 
মুখ ও কিন্তু একটা মুখোশ
তা না হলে এমন করে
বদলে যাবে কেন এতো
ক্ষণে অণুক্ষণে
সে প্রতিবার
একরকম না থেকে কেন
এ অচেনা পরিবর্তন
তার বারবার
 
বসের সামনে দাঁড়ালে যে
চেহারাটা, দেখা যায় না
অধীনস্থদের অধীনে
পাওনাদারের কাছে মুখটা
কত সহজ বদল ঘটে
বা ধারদেনা করা লোকটি
দেখতে পেলে…
 
মুখও কিন্তু একটা মুখোশ
তা না হলে
বাচ্চারা ভয় পাবে কেন এমন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: সর্বসত্ব সংরক্ষিত