| 23 মে 2024
Categories
কবিতা সাহিত্য

মুনিরা মেহেক এর তিনটি কবিতা

আনুমানিক পঠনকাল: < 1 মিনিট
১.
শৈশব রেখে উড়ে যাচ্ছে এক অন্ধ বাদুর
হাওয়া উতাল হয়ে ডাকছে নদীর নাম ধরে
কথার গুঞ্জন থামানো যাচ্ছে না
তামার পাখি বসে আসে চুপচাপ
এ কার ছায়া মৃত পড়ে আছে
কার পদতল ঘিরে  নাচছে লাল পিঁপড়ার দল
জানালা উড়ে যাচ্ছে না পোষা বাদুরের সাথে
উতাল নদীটি লিখছে গান হাওয়ার নাম করে
২.
পা তুলে দাড়িয়ে রয়েছে চাঁদ
একটা ঘাসকাটা যন্ত্র মাড়িয়ে গেছে গোলাপ বাগান
আর একটা ছায়া ছায়া মুখ অন্ধকারে আঁকছে উদাস দেয়াল
মৃত পাখিটির চোখে জলের আয়না
একটি মৃতপ্রায় টিউবলাইট চেয়ে আছে আমার দিকে
আমি বসে থাকি সুরমার জলে
বর্ষার তুমুল ঢেউ নিয়ে আসে আগর পাতা
ভাসতে ভাসতে পথ ভিড়ে ঠোঁটের কিনার জুড়ে
হতবাক অনাত হাওয়া আজ তাই মুচকি হাসে
পা তুলে আবার দাড়ালো চাঁদ
পৃথিবীর লোকের হাতে থান থান কাপড়ের বাগান
দরজা খুলে হাঁটতে বের হও শ্যাম
৩.
হাত থেকে খসে পড়ল হাড়
হাড় থেকে পড়তে থাকল বিরহের বিলাস
বৃষ্টির বুক ছিড়ে নামল পাড়াতো মই
জানালার কাঁচ গলে ডাকল আদি প্রেমকলা
বাতাসে উড়ে এলো এক আতাতায়ী বুক
শংকার দীর্ঘ আয়ু নিয়ে জেগে আছে ঘুম
হাসতে হাসতে ফিরে আসছে অন্ধ জোয়াল
ঘর ছেড়ে বাড়ি যাচ্ছে অনাথ হাওয়া
দুপুর ঘেমে উঠছে তন্দ্রাল চোখে
মেহেক নাম ধরে ডেকে যায় কাল
ভোর হলো বলে নিভছে বাতির অহংকার
হাত থেকে খসে পড়লো  শ্যামের হাড়

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: সর্বসত্ব সংরক্ষিত