| 2 মার্চ 2024
Categories
ভাসাবো দোঁহারে

ভাসাবো দোঁহারে: তিনটি প্রেমের কবিতা । রিমঝিম আহমেদ

আনুমানিক পঠনকাল: < 1 মিনিট
 
দোসর
 
তোমার বাড়ির দিকে উড়িয়ে দিয়েছি কবুতর
সহসা উতল হাওয়া, লতাপাতাডালে জাগে ভয়
হয়েছি দোসর প্রেমে, কে যে কার ছায়া অনুচর!
যা কিছু দুঃখ তোমার, কেন তা আমার মনে হয়?
 
 
 
 
 
 
সয়ে নিচ্ছি
 
এই তো সয়ে নিচ্ছি জীবন। যেমন রোদ, হাওয়া, বৃষ্টির সাথে সয়ে নিয়েছি মেঘ ও মাইগ্রেন। নির্ঘুম রাতের বিছানা বালিশে যেমন আটকে থাকে ছটফট তেমনি সয়ে নিচ্ছি।
তোমাকে সয়ে নিচ্ছি, প্রেম
তোমাকে সয়ে নিচ্ছি, অবহেলা!
তোমাকে সয়ে নিচ্ছি, খিদে
তোমাকে সয়ে সয়ে নিচ্ছি, দুপুর
তোমাকে সয়ে নিচ্ছি, নির্দয় মাগরিব।
সয়ে নিচ্ছি আমাকে
সয়ে নিচ্ছি এই মৃত্যুজড়ানো অগাধ বেঁচে থাকা।
 
 
 
 
 
 
পরসমাচার
 
অচেনা নদীরকূলে ঘর, দূরে কুপি জ্বলে
চুলখোলা সন্ধ্যা চুইয়ে যে নাও থেমেছে–
তোমার পায়ের কাছে, তাকে ছুঁয়ে দেখ!
নুলিয়া, তোমার চোখে মহামোহঘোর
চিনেছ কি কর্ণফুলী? জানো আদিবাস?
সবুজ পানিতে যার প্রত্যেহ সিনান
তার জন্য ঢেউয়ে ঢেউয়ে ভাসাইও পরান
জলের ভাষায় লিখো গূঢ়পত্রখানি
গাল থেকে অশ্রুবিন্দু শুকোবার আগে
কে যে কাকে ছেড়ে যাব? যেতেই তো হবে!
যায় যারা– ফেরে না কখনো। বিবিধ সংসার
অরণ্যরহস্যে টেনে ধরে রাখে, হাত-মাথা…
 
যে রাখাল কাছে রাখে করুণ বাঁশিটি
রাগে তার তুলে দিয়ো মদমত্ত আকুল চুম্বন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: সর্বসত্ব সংরক্ষিত