| 28 ফেব্রুয়ারি 2024
Categories
কবিতা সাহিত্য

ফারহানা রহমানের গুচ্ছ কবিতা 

আনুমানিক পঠনকাল: 3 মিনিট
 
 
জানালা
 
নিঝুম বৃষ্টিতে ভিজে
কেউ একা হয়ে গেছে
দৃশ্যটি শিল্পীত নয় জেনে
তুলির আঁচড় মুছে দিতে
 
ক্যানভাসে ঢেলে দেই
অন্ধকার
তারপর ঘরের ভেতর
শুরু হয় তুষারপাত
তারপর অজস্র ফাটল
 
শত শত নদী
আলোর ঘূর্ণিতে অবসাদ
উথাল-পাথাল স্মৃতি!
 
অবশেষে
বিস্তীর্ণ শূন্যতা নিয়ে
শব্দের সংকেত ভুলে গিয়ে
অপেক্ষার অবসান ঘটে
তখন কেবলই
শরীরে জানালা বন্ধ হয়
আর মনের জানালা
বিরহে পুড়তে থাকে।
 
 
 
Irabotee.com,irabotee,sounak dutta,ইরাবতী.কম,copy righted by irabotee.com
 
 
 
পথ
 
যে পথে গিয়েছ চলে
অনন্ত নেশায়
দুরত্বের ডানা পরে
মৃদু অনুভব বুকে
গোধূলির সাথে হেঁটে,
সেইখানে তবু থেমে গেছে রোদ্দুর
আকাশে শরত এলে
তৃষ্ণাতুর পাখিসব
নিদারুণ জলের আকুতি নিয়ে
আলোর অস্পৃশ্য ঘ্রাণে
বাসনার মুখোমুখি হয়
দ্বিধাহীন ভুলগুলো তাই
দূর থেকে একা একা হাসে
আর অন্ধ ফুল ফুটে ফুটে
ব্যথা আর বেদনার মৃত্যু হলে
থেমে যায় চোখ…
 
 
 
 
 
Irabotee.com,irabotee,sounak dutta,ইরাবতী.কম,copy righted by irabotee.com
 
 
 
 
দস্তখত
 
গাছের বাকলে লেখা নাম মুছে গেলে
মিথ্যে করে লেখা চিঠিটির জন্য
কেন হয় এত শোক!
চোখের উপর
আরেকটি মৃতদিন খসে গেলে
জেনে গেছি, সীমারেখা ভেঙে ফেলেছে
শেখানো ভণিতা।
তবু মাটির সিথানে হেঁটে যেতেই বুঝেছি   
হারিয়ে ফেলেছি কবে আমি
নিজেরই দস্তখত!
 
 
Irabotee.com,irabotee,sounak dutta,ইরাবতী.কম,copy righted by irabotee.com
 
 
রাত
 
এখানে অনেক রাত বিছানা পেতেছে অন্ধকার
চোখের ভেতর এক জড়িয়ে যাওয়া
 
রাস্তা সাদা শালুকের মতো ভেসে থাকে,
 
সিঁড়িতে ঝুলন্ত ঘুম
দু’চোখের আকুতিতে ডুবে গেছে হয়তো!
 
অস্তিত্ব উপড়ে ফেলে
এতো আলো জ্বেলো না ঈশ্বর
বিস্মৃতি এসে ওষ্ঠ ও অধরে আশ্রয় করে নিলে  
ব্যাকুলতা লীন হয়ে যায় জেনেও
 
কি করে তুমি
 
ললাটের রেখাগুলো মুছে দিতে চাও?
 
 
 
Irabotee.com,irabotee,sounak dutta,ইরাবতী.কম,copy righted by irabotee.com
 
 
 
 
কবিতা কখনো মরে না
 
 
 
 
একদিন তুমি বলেছিলে, কবিতা তো শান্তির জন্যই
আটা থেকে তৈরি হয় রুটি আর শান্তি থেকে জন্ম হয় কবিতার
তাই যুদ্ধ ও আগুন লাগানোর দল,
দাঙ্গাবাজ আর নেকড়ের দল
কবিকে পুড়িয়ে মারার জন্যই
পৃথিবীর রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে মরে।
 
যুদ্ধের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে গিয়েই
বায়রন প্রাণ দিয়েছিল গ্রিসে
তরবারিবিদ্ধ পুশকিনের নিষ্প্রাণ দেহটি পড়েছিল খোলা উদ্যানের মধ্যে
ফ্যাসিস্টরা খুন করে মহত্তম কবি ফেদেরিকো লোরকাকে,
এসবের মধ্যেও তো তুমি বেঁচে ছিলে আলবের্তি
যদিও তোমাকে বহুবার বহুভাবে মারার চক্রান্ত করা হয়েছিল
গ্রানাদায়, বাদাহোসে মৃত্যুফাঁদ পাতা হয়েছিল
এমনকি তোমার গ্রামের বাড়িতেও হানা দিয়েছিল নেকড়ের দল
 
মাদ্রিদের রাস্তায় চলতে চলতেই
জনতার কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে হারিয়ে গেছ তুমি,
জন্মেছিলে সমুদ্রের সংগীতের মধ্যে
তাই তো তোমার কবিতায় ছিল
শীতকালে ফোটা লাল গোলাপের মতোই মাধুর্য
সেই গোলাপের উজ্জ্বল্যের আভা
ছড়িয়ে পড়তো এস্পানিয়ার রাস্তায়
যেখানে চলতো ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে নিরন্তর যুদ্ধ
 
তুমি বলেছিলে, বিড়ালের জীবনের মতোই
কঠিন প্রাণপ্রাচুর্য সম্পূর্ণ কবিতার মৃত্যু নেই
 
কবিতাকে হয়রানি করা যায়
টেনে-হিঁচড়ে, থুতু ছিটিয়ে মশকরা করা যায়
জেলে ভরে রাখা যায়, হয়তো বা নির্বাসনে দেওয়া যায়
গুলি চালিয়ে জখম করা যায়, তবু কবিতা কখনো মরে না।
 
বরং সে তার সৌন্দর্যকে দিকদিগন্তে ছড়িয়ে দিয়েই
নবান্নের হাসি নিয়ে চিরদিন বেঁচে থাকে।
Irabotee.com,irabotee,sounak dutta,ইরাবতী.কম,copy righted by irabotee.com
 
 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: সর্বসত্ব সংরক্ষিত