ক্ষমা চাইলেন অমিতাভ বচ্চন

হাসপাতালে চার দিন চিকিৎসা শেষে শুক্রবার বাড়ি ফেরেন অমিতাভ বচ্চন। এরপর দুই দিন পর সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে ক্ষমা চাইলেন তিনি। কিন্তু যাকে দেখার জন্য প্রতি রবিবার বাড়ির বাইরে ভিড় জমান নানা বয়সী ভক্তরা তিনি কেন টুইট বার্তায় ক্ষমা চাইলেন?

আসলে ঝামেলা পেকেছে রবিবারের এই দেখা করতে আসা নিয়েই। আর এজন্যই ক্ষমা চেয়েছেন অমিতাভ বচ্চন।

আসলে অসুস্থ বিগ বি-কে না দেখে থাকতে পারছিলেন না ভক্তরা। কেমন আছেন তাদের গুরু? জানতে-দেখতে প্রতি রবিবারের মতোই গতকালও তারা দাঁড়িয়েছিলেন বাংলোর সামনে। কিন্তু চিকিৎসকদের নিষেধ থাকায় অমিতাভ বাড়ি থেকে বেরোতে পারেননি।

তাই ভক্তদের ছবি টুইটে পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, “বারণ করার পরেও সবাই আমার জন্য এতক্ষণ অপেক্ষা করেছেন। কিন্তু অসুস্থতার জন্য বেরোতে পারিনি। খুব খারাপ লাগছে। তাই জোড়হাতে আপনাদের সবার থেকে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।”

উল্লেখ্য, অমিতাভের লিভারের সমস্যা দুই দশকের পুরোনো। গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গটির মাত্র ২৫ শতাংশ কাজ করছে। এর জন্য রুটিন চেকআপে নিয়মিত হাসপাতালে হাজিরা দেন। এবার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়।

২০০০ সালে টিউবারকিউলোসিসের চিকিৎসা নিতে হয় এই কিংবদন্তি অভিনেতার। তিনি জানতেন না, প্রায় ৮ বছর আগে থেকে এই রোগ শরীরে বাসা বেঁধেছিল।

‘কুলি’র সেটে গুরুতর দুর্ঘটনার শিকার হন। ওই সময় একাধিক অস্ত্রোপচারও হয় তার শরীরে। প্রচুর পরিমাণ রক্ত নিতে হয়। রক্তদাতার কাছ থেকে তার শরীরে হেপাটাইটিস বি’র ভাইরাস অজান্তে প্রবেশ করে। তাই তারপর থেকে তাকে সব সময় চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হয়। নিয়মিত পর্যবেক্ষণের কারণেও থাকতে হয় হাসপাতালে।

মঙ্গলবার থেকে অমিতাভ সনি টেলিভিশনে প্রচার চলতি রিয়্যালিটি শো ‘কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’র শুটিংয়ে অংশ নেবেন বলে শোনা যাচ্ছে। সামনে তাকে দেখা যাবে ব্রহ্মাস্ত্র, গুলাবো সিতাবো, চেহেরাসহ বেশ কয়েকটি ছবিতে।

 

 

 

 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত