স্বরূপে ফিরছে অস্ট্রেলিয়া


বিশ্বকাপের আগমুহূর্তে ‘আসল’ চেহারায় ফিরেছে অস্ট্রেলিয়া। ভারতের মাটি থেকে ওয়ানডে সিরিজ জেতার আনন্দ নিয়ে নেমেছে তারা পাকিস্তানের ‘ঘরের মাঠ’ সংযুক্ত আরব আমিরাতে। সেখানেও ওয়ানডে সিরিজ জিতে নিলো বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। তৃতীয় ওয়ানডেতে পাকিস্তানকে ৮০ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।


অ্যারন ফিঞ্চ ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের হাফসেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে অস্ট্রেলিয়া স্কোরে জমা করে ২৬৬ রান। জবাবে প্যাট কামিন্স ও অ্যাডাম জাম্পার বোলিংয়ের সামনে ৪৪.৪ ওভারেই পাকিস্তান গুটিয়ে যায় ১৮৬ রানে। তাতে টানা তৃতীয় জয়ে দুই ম্যাচ আগেই ৩-০তে সিরিজ জিতে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

আবুধাবিতে উসমান খাজা শূন্য রানে ফিরলেও আবারও জ্বলে ওঠে ফিঞ্চের ব্যাট। টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি পেয়েই যাচ্ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক। কিন্তু ৯০ রানে থামতে হয় তাকে, ১৩৬ বলের ইনিংসটি এই ওপেনার সাজান ৫ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায়। তার সঙ্গে পিটার হ্যান্ডসকম্ব করেন ৪৭ রান। তবে অস্ট্রেলিয়ার স্কোর বড় হওয়ার পেছনে সবচেয়ে বড় ভূমিকা গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের। ছয় নম্বরে নেমে তিনি ৫৫ বলে ৮ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় খেলেন ৭১ রানের ঝলমলে ইনিংস। অ্যালেক্স ক্যারি অপরাজিত থাকেন ২৫ রানে।

অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানদের প্রতিরোধের সামনে একটি করে উইকেট নিয়েছেন উসমান শিনওয়ারি, জুনায়েদ খান, ইয়াসির শাহ, ইমাদ ওয়াসিম ও হারিস সোহেল।

২৬৭ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে প্যাট কামিন্সের তোপের মুখে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। এই পেসারের বলে শুরুতেই ফিরে যান শান মাসুদ (২), হারিস সোহেল (১) ও মোহাম্মদ রিজওয়ান (৯)। মাত্র ১৬ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারানো পাকিস্তান আর ঘুরে দাঁড়তে পারেনি। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়েছে তারা। সর্বোচ্চ ৪৬ রান এসেছে ওপেনার ইমাম-উল-হকের ব্যাট থেকে। ৪৩ রান করেছেন ইমাদ ওয়াসিম। ভালো শুরুর পরও ইনিংস লম্বা করতে পারেননি উমর আকমল (৩৬) ও শোয়েব মালিক (৩২)।

অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে সফল বোলার অ্যাডাম জাম্পা। ৪৩ রান দিয়ে তার শিকার ৪ উইকেট। তবে এই ম্যাচে সবাইকে ছাড়িয়ে গেছেন কামিন্স। ‍শুরুতেই পাকিস্তানকে এলোমেলো করে দিয়ে ৩ উইকেট তুলে নেওয়া এই পেসারই জিতেছেন ম্যাচসেরার পুরস্কার।

সূত্রঃ ক্রিকইনফো

 

 

 

 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত