| 29 ফেব্রুয়ারি 2024
Categories
কবিতা সাহিত্য

স্মৃতিমাখা পথ ও অন্য চারটি কবিতা । রজত গোস্বামী

আনুমানিক পঠনকাল: 2 মিনিট
আকুতি
 
যদি একটি বারের জন্য ভালোবাসো,
মন থেকে বাসো,রেখে দেওয়ার জন্য বাসো,
সূর্যের শেষ ছায়াটুকু বাড়ি ফিরে গেলে
সাহসী বুকে কাছে টেনে নাও আমায়!
দরজার ওপারে অপেক্ষার নিদ্রাটুকু মুঠোবন্দী করে দাঁড়িয়ে রয়েছি একাকী৷
 
প্রানের বাতিখানি নিভে যাওয়ার আগে
একবার জড়িয়ে ধরো …..
 
তোমার পরশে ডুবে যেতে বহুকাল ধরে স্বপ্নের ডালিখানি সাজিয়েছি,
রাতের শেষ তারাগুলো নিভে যাওয়ার আগে
এই শূন্যতা ভরা বুকে একবার হাতরাখো৷
 
ভুলে যাও এই সংসার ইতিবৃত্তের উপাখ্যান
তমসার আবডাল ভেদ করে কাছে টেনে নাও একটি বারের জন্য৷
 
স্মৃতিমাখা পথ
 
কাল এ পথে গিয়েছি,
পরশু ও পথে ,
পাগলের ন্যায় খুঁজে বেড়িয়েছি
ফেলে আসা হিম মাখা শুকনো গোলাপ!
সময়ের কাছে সময় চেয়েছি কিঞ্চিত,
হাতড়ে হাতড়ে খুঁড়ে বের করতে চেয়েছি
পুরোনো রামধনু রং বিকেলগুলো৷
অবশেষে পথে পথে খুঁজে পেলাম সেই স্মৃতিআঁকা চেনা পথের বাঁক,
যেখানে শেষবারের মতো কান্নামাখা চোখে দূর থেকে গেয়েছিলে
“… ও কে আজ চলে যেতে বল না ও…”৷
 
অপেক্ষা
 
গলার স্বরে তিক্ত কথার রেশ
মৌনতা যে বড্ড বেমানান,
প্রয়োজনেতে দাঁড়িয়ে আছি বেশ
আজকাল আর হয়না অভিমান৷
 
মনজুড়ে আজ অবাধ্যতার ছোঁয়া
স্বপ্ম জুড়ে রেশমি বিছানা,
আঙুলখানা হয়নি খুঁজে নেওয়া
প্রশ্ন জুড়ে অনেক অজানা৷
 
চিঠি পাঠাও বদ্ধ একটি খামে
শব্দ জুড়ে দাঁড়িয়ে থাকে শোক,
ঠিকানা আজ বেনামী সব নামে
সময় হাতে একটু দেখা হোক৷
 
দূরত্ব দের অজুহাতের সারি
প্রেম যেনো আজ সাপ্তাহিক হাটে,
দুঃখ গুলো লাগছে ভীষন ভারি
অপেক্ষাদের খরা প্রবন মাঠে৷
 
প্রত্যাখান
 
এই যে দূরন্ত ছেলে!
প্রেমিকার মুখে “না” শুনে ছুটে চলেছো শরাবখানায়৷
যখন খুশি ধুঁয়ো ওড়াচ্ছো রাস্তা-ঘাটে!
দাঁড়াও বলছি-
সময় বেশি নেই,দিগন্তের দিকে হেঁটে চলো৷
ভালোবাসা কচুপাতার ওপর একফোঁটা জলের মতো
ভুল হলেই গড়িয়ে পড়ে৷
 
সে ও এক বিকেল ছিলো
 
কাঁধের ওপর হাতের সারি
ঘাসের চাদর রংবাহারি,
আদর -পরশ গল্প গাছায়
বন্ধুত্বের কারিগরি
 
সে ও এক বিকেল ছিলো,দারুন বাহারি৷
 
স্কুলের শেষ ঘন্টা বাজা
মন বাগানে সে যে রাজা,
ভেঁঁপুর আওয়াজ উঠতো জেগে,
পথের সাথে পথ সওয়ারী
 
সে ও এক বিকেল ছিলো,দারুন বাহারি৷
 
বৃষ্টি বিকেল,রোদ সকালে
খেলার মাঠে সদল বলে,
হই-হুল্লোড়,হাসি ঠাট্টায়
মাত তো যে ভারী
 
সে ও এক বিকেল ছিলো,দারুন বাহারি৷
 
পথ ফিরতি সেই মেয়েটি
মুচকি হাঁসি বিলিয়ে দিয়ে,
হৃদমাঝারে দখল নিয়ে
দিতো যে পাড়ি
 
সে ও এক বিকেল ছিলো,দারুন বাহারি৷

One thought on “স্মৃতিমাখা পথ ও অন্য চারটি কবিতা । রজত গোস্বামী

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: সর্বসত্ব সংরক্ষিত