বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শিবিরকে রেডজোন ঘোষণা

যে আশঙ্কা করা হয়েছিল, তাই হল! বাংলাদেশের (Bangladesh) কক্সবাজারে রোহিঙ্গা (Rohingya) শরণার্থী শিবিরকে করোনা রেড-জোন ঘোষণা করা হল। বাংলাদেশে লকডাউন প্রত্যাহারের পরই লাফিয়ে বেড়েছে রোহিঙ্গা শিবিরে করোনা (Corona) আক্রান্তের সংখ্যা। গত এক সপ্তাহে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা-বৃদ্ধি দেখেই এলাকাকে দ্রুত রেড-জোন ঘোষণা করেছে স্থানীয় প্রশাসন। বিশ্বের বৃহত্তম রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের ঘিঞ্জি পরিবেশে মারণ-ভাইরাসের প্রার্দুভাব ঠেখাতে ফের সংশ্লিষ্ট এলাকায় লকডাউন ও বিধিনিষেধ ঘোষণা করা হয়েছে।

বাংলাদেশের এই রোহিঙ্গা শিবিরে রয়েছে ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গার বাস। গত ১৬ মে ৩৬ জনের নমুনা পরীক্ষার পর দু’জনের শরীরে প্রথম মহামারীর ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। তাঁদের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছিল। সেই সংখ্যা সম্প্রতি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৫। কক্সবাজার এলাকায় রেকর্ড ৮৭৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।


শুক্রবার জরুরি বৈঠক ডাকেন জেলাশাসক মহম্মদ কামাল হোসেন। সেই বৈঠকেই ২০ জুন পর্যন্ত গোটা পুরএলাকায় কড়াভাবে লকডাউন পালনের নির্দেশ দেন তিনি।

লকডাউনে বন্দি মানুষদের সাহায্যে NGO গুলি সাহায্য করতে পারলেও কর্মী সংখ্যা আগের থেকে কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও রোহিঙ্গা শিবিরে প্রবেশ করার ক্ষেত্রে প্রত্যেক গাড়িতে লাগানো বারকোড স্ক্যান করা হবে। বারকোড পেতে গেলে প্রশাসনের কাছে আবেদন করতে হবে বলে জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশে এখনও পর্যন্ত ৬৩ হাজারের বেশি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মারণ ভাইরাসের শিকার হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮৫০ জনের। করোনা আক্রান্তের নিরিখে বিশ্বের প্রথম ২০টি দেশের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ।

 

 

 

 

 

 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত