বাসে চেপেই এবার দিল্লি থেকে লন্ডন

বিশ্বভ্রমণে আগ্রহীদের জন্য সুখবর। দিল্লি থেকে লন্ডনের ২০ হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ পথ অতিক্রম করবে বাস ৷ পৌঁছতে লাগবে ৭০ দিন ৷ ইংল্যান্ড পৌঁছনোর আগে আরও ১৮টি দেশ ঘুরে যাবে এই বাস৷

দিল্লি সহ ভারতের যে কোনও প্রান্ত থেকে লন্ডন যেতে চাইলে সাধারণত বিমানে করেই যেতে হয়। কিন্তু এবার সড়কে বাসে চেপেও দিল্লি থেকে লন্ডনে পাড়ি দিতে পারেন। গুরগাঁও-এর একটি বেসরকারি ট্রাভেল কোম্পানি ১৫ অগাস্ট একটি বাস লঞ্চ করেছে, যার নাম ‘বাস টু লন্ডন’। এই বাসে চড়ে ৭০ দিনে লন্ডনে পৌঁছনো যাবে, তাও আবার সড়ক পথে। আর সফর হবে একমুখী।
৭০ দিনে দিল্লি থেকে লন্ডন পাড়িতে দিতে বাসের সওয়ারিদের অন্য ১৮ টি দেশের মধ্যে দিয়ে যেতে হবে। ভারত ছাড়াও এই দেশগুলির মধ্যে রয়েছে মায়ানমার, থাইল্যান্ড, লাওস, চিন, কিরঘিজস্তান, উজবেকিস্তান, কাজাখস্তান, রাশিয়া, লাটভিয়া, লিথুয়ানিয়া, পোল্যান্ড, চেক প্রজাতন্ত্র, জার্মানি, নেদারল্যান্ড, বেলজিয়াম, ফ্রান্স ও ইংল্যান্ড।
অনেকের মনেই প্রশ্ন উঠতে পারে, এই যাত্রা কীভাবে সম্ভব হবে।

আসলে দিল্লির বাসিন্দা দুই ব্যক্তি তুষার ও সঞ্জয় মদান এর আগেও সড়ক পথে দিল্লি থেকে লন্ডনে গিয়েছেন। ২০১৭,২০১৮ ও ২০১৯-এ তাঁর গাড়িতে করে এই সফর করেছেন। আর এই অভিজ্ঞতার পরিপ্রেক্ষিতে ২০ জনের সঙ্গে বাসে করে যাত্রা সম্পূর্ণ করার পরিকল্পনা করেছেন তাঁরা।
‘বাস টু লন্ডন’-এ সফরের সময় সওয়ারিদের সব ধরনের সুবিধা দেওয়া হবে। এই সফরের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হচ্ছে বাস। থাকছে ২০ জন যাত্রীর বসার ব্যবস্থা। সমস্ত আসনই বিজনেস ক্লাসে। ২০ জন যাত্রী ছাড়াও বাসে থাকবেন আরও চারজন। তাঁরা হলেন, একজন চালক, একজন সহকারী চালক। আয়োজকদের পক্ষে এক ব্যক্তি ও একজন গাইড। ১৮ দেশ সফরে গাইড বদলে যাবে, এতে যাত্রীদের কোনও অসুবিধা হবে না।
এবার মনে প্রশ্ন উঠতেই পারে, সফর সম্পূর্ণ করতে কতগুলি ভিসা ও কত অর্থ লাগবে? এই প্রশ্নের উত্তরে বলা যায়, এই সফরের জন্য ১০ টি ভিসা প্রয়োজন। যাত্রীদের যাতে কোনও অসুবিধা না হয়, সেজন্য ট্রাভেলার কোম্পানি যাত্রীদের ভিসার পুরোপুরি ব্যবস্থা করবে।
দিল্লি থেকে লন্ডনে এই সফরের জন্য খরচ হবে ১৫ লক্ষ টাকা।
‘বাস টু লন্ডন’-এর এই সফরের জন্য চারটি ক্যাটেগরি বেছে নেওয়া হয়েছে। কারুর সময় কম রয়েছে এবং তিনি লন্ডন পর্যন্ত সফর সম্পূর্ণ করতে পারবেন না, কিন্তু অন্য দেশ ঘুরে দেকতে চান, তাহলে তাঁকে অন্য ক্যাটেগরিতে অন্তর্ভূক্ত করা হবে। প্রত্যেক ক্যাটেগরির জন্য অর্থের পরিমাণ ভিন্ন। লন্ডন পর্যন্ত সফরের জন্য ১৫ লক্ষ টাকা খরচ হবে। এই সফরের জন্য ইএমআই-এর বিকল্পও থাকছে।

অ্যাডভেঞ্চার ওভারল্যান্ড ট্রাভেলার কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা তুষার অগ্রবাল বলেছেন, আমি ও আমার সঙ্গী সঞ্জয় ২০১৭,২০১৮ ও ২০১৯ এ গাড়িতে করে দিল্লি থেকে লন্ডনে গিয়েছিলাম। আমাদের সঙ্গে কয়েকজন সঙ্গীও ছিলেন। আমরা প্রতি বছরই এ ধরনের যাত্রার বন্দোবস্ত করি।
তিনি বলেছেন, আমাদের এই পরিকল্পনায় বেশ কয়েকজন সামিল হওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেন। এরপরই আমরা এই পরিকল্পনা করি। আসলে এই ট্রিপ ১৫ অগাস্ট লঞ্চ করেছি। আশা করছি, আমাদের এই যাত্রা ২০২১-এর মে মাসে রেজিস্ট্রেশন শুরু হবে। যদিও করোনা পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে সফরের রেজিস্ট্রেশন শুরু করিনি। ভারতের সঙ্গে অন্যান্য দেশের পরিস্থিতি দেখে যাত্রা শুরু করা হবে।
অগ্রবাল বলেছেন, ৭০ দিনের এই সফরে যাত্রীদের সব ধরনের সুবিধা যাত্রীদের দেওয়া হবে। থাকবে হোটেলে থাকার ব্যবস্থা। ওই হোটেল হবে চার বা পাঁচ তারা। যাত্রীরা অন্য দেশে ভারতীয় খাবার খেতে চাইলে, সেই অনুসারে তা দেওয়া হবে।
তিনি বলেছেন, এই সফরের জন্য আবেগ থাকতে হবে। বিশ্ব ঘুরে দেখতে আগ্রহীরাই এই সফরে সামিল হবেন।

এই বাস যাত্রা সম্পর্কে আরও বিষদে জানতে লগ ইন করুন সংস্থার ওয়েবসাইট  www.bustolondon.in-এ ৷ 

 

 

 

 

 

 

 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত