বাজপেয়ী তারপর দুইশত পেরোতে পারেননি

২০১৯ এর নির্বাচনের শেষে বুথ ফেরত সমীক্ষায় এই ইঙ্গিত স্পষ্ট যে ফের ক্ষমতায় ফিরছেন মোদী। কিন্তু বাস্তবে এটা কতটা ঠিক সেটা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করছেন রাজনীতি বিশেষজ্ঞরা। তারা পুনরায় মনে করিয়ে দিচ্ছেন ২০০৪ সালের বুথ ফেরত সমীক্ষার কথা। আজ থেকে ১৫ বছর আগে বুথ ফেরত সমীক্ষা ইঙ্গিত দিয়েছিল অটলবিহারী বাজপেয়ীর নেতৃত্বাধীন এনডিএ ফের ক্ষমতা ফিরছে ৷ কিন্তু বাস্তবে ফলাফল ছিল বিজেপির কাছে হতাশা জনক। কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোটের থেকে বাজপেয়ী নেতৃত্বাধীন জোট অনেকটাই পিছিয়ে ছিল।

সেই সময় বুথ ফেরত সমীক্ষা জানিয়েছিল প্রায় পাচ্ছে ২৪৮-২৭৮টি আসন পাচ্ছে এনডিএ জোট। কিন্তু বাস্তবে দুশোর গন্ডি পেরোতে পারেনি বিজেপি। ১৮৯ টি আসন পেয়েছিলো বিজেপি। সেখানে কংগ্রেস পেয়েছিলো প্রায় ২২৫ টি আসন। তখন বলা হয়েছিল এনডিএ ২৭২ ম্যাজিক ফিগার থেকে যদি সামান্যই কমও পায় তা দু একটা জোটসঙ্গীর সমর্থন নিয়ে উতরে যাবে৷ কিন্তু বাস্তবে হয়নি কিছুই। ২০০৪ সালে বিজেপি ‘India Shining’ স্লোগান তুলেছিল ভোটের প্রচারে নেমে৷ যদিও ভোটের পরে প্রাক্তন উপ প্রধানমন্ত্রী লালকৃষ্ণ আদবানি বুঝতে পেরেছিলেন, সেই সময় ভোটের প্রচারে এই শব্দ ব্যবহার করতেগিয়ে বিরোধীরা সুযোগ পেয়ে গিয়েছিল দেশের আরও অনেক কিছু তুলে ধরার৷ যেমন দারিদ্র, বেকারত্ব, অসম উন্নয়ন ৷ আর সেগুলি তুলে ধরে বিরোধীরা প্রশ্নের মুখে ফেলে দিয়েছিল তৎকালীন সরকারের দাবিকে৷

আবার এটাও ঠিক ২০০৪ এর সঙ্গে ২০১৯ সালের অবস্থার ফারাক রয়েছে৷ ১৯৯৯ সালে বিজেপির ভোট ছিল ২৩.৮ শতাংশ যেখানে ২০১৪ সালে ভোট ছিল ৩১.৩ শতাংশ৷ তাছাড়া সাংগঠনিক দিক থেকে বিজেপি এবার অনেক বেশি রাজ্যে শক্তিশালী৷ তাই বিজেপির এবার অনেক বেশি ভোটের ভিত্তি রয়েছে৷ ফলে ওড়িশা পশ্চিমবঙ্গ এবং উত্তরপূর্ব রাজ্যগুলি অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী।

.

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত