বই কুড়িয়ে লাইব্রেরি


কলম্বিয়ার বোগোটায় যে অঞ্চলে গুটিরেজ় থাকেন, সেখানকার বাসিন্দারা বেশ দরিদ্র। কিছুদূর লেখাপড়া করার পরই সেসব ছেড়ে দিয়ে কাজের সন্ধানে বেরিয়ে পড়তে হয় শিশুদেরও। সেই অঞ্চলে এখন শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছেন গুটিরেজ়
একদিকে উচ্চশিক্ষিত কিছু মানুষ বইয়ের মর্যাদা বুঝছেন না, আর অন্যদিকে অল্পশিক্ষিত, তথাকথিত ‘নিম্নশ্রেণী’র একজন মানুষ সেই বই-ই তুলে রাখছেন যত্নে।
মানুষটি কলম্বিয়ার বাসিন্দা ৫৫ বছর বয়সি আলবার্তো গুটিরেজ়। ১৯৯৭ সাল থেকে আবর্জনা সংগ্রহকারী হিসেবে কাজ করছেন তিনি। অনেক সময়ই দেখতেন, অন্য আবর্জনার সঙ্গে মানুষ ফেলে দিয়েছে বইও! এমনই একদিন আবর্জনার স্তূপ থেকে খুঁজে পান লিও টলস্টয়ের বিখ্যাত উপন্যাস ‘অ্যানা ক্যারেনিনা’। সাফাইকর্মী গুটিরে‌জ়ও ভালভাবেই জানতেন ওই বইয়ের মাহাত্ম্য। বিশ্ববিখ্যাত এই বইটি কেউ ফেলে দিতে পারে ভাবতেও পারেননি তিনি। বইটি তুলে নিজের কাছে রেখে দেন। সেই শুরু। তারপর থেকে আবর্জনার স্তূপের মধ্য থেকে বই উদ্ধার করেই চলেছেন তিনি। বিশ্ববিখ্যাত ক্লাসিক থেকে আধুনিক বই, সবই রয়েছে গুটিরেজ়ের সংগ্রহে। তাঁকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে অন্য সাফাইকর্মীরাও আবর্জনার মধ্যে বই খুঁজে পেলে তা দিয়ে আসেন গুটিরেজ়কে। অবিশ্বাস্য মনে হলেও, তাঁর সংগ্রহে এখন রয়েছে ২৫,০০০ বই! খুলেছেন একটি পাবলিক লাইব্রেরি। কলম্বিয়ার বোগোটায় যে অঞ্চলে গুটিরেজ় থাকেন, সেখানকার বাসিন্দারা বেশ দরিদ্র। কিছুদূর লেখাপড়া করার পরই সেসব ছেড়ে দিয়ে কাজের সন্ধানে বেরিয়ে পড়তে হয় শিশুদেরও। সেই অঞ্চলে এখন শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছেন গুটিরেজ়। তাঁর দান করা বইয়ে উপকৃত হয়েছে সেখানকার ৪৫০-রও বেশি লাইব্রেরি, রিডিং সেন্টার ও স্কুল।

সূত্রঃ এবিপি

 

 

 

 

 

 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত