| 18 এপ্রিল 2024
Categories
পাঠ প্রতিক্রিয়া সাহিত্য

কবি ও তার অনুচ্চারিত অভিমান

আনুমানিক পঠনকাল: < 1 মিনিট
কবিরা যখন গদ্য লেখেন তখন সে গদ্যের আবেগ মাখানো অনুভূতিগুলি বড় মন কেমন করা হয়।সুনন্দা চক্রবর্তীর গদ্যের বইখানি তেমনি আলো আঁধারিতে বসে তাঁর মায়া মাখা আঙুলের সংলাপ।পড়তে পড়তে মনে হয় তিনি আলো ধুলো মাখা কোনোও এক বিকেলে বুঝি নিজেকে আবিষ্কার করছেন।মধ্যজীবনের আম বাঙালি মেয়েরা যেমন লেখার মধ্যে দিয়ে বারেবারে নিজেকে আবিষ্কার করার চেষ্টা করে ঠিক তেমনি। লেখার জগতে ঢুকে পড়া সঞ্চিতা চরিত্রটির সঙ্গে তাঁর যাপন বড়ো একাত্ম হয়ে ওঠে।
পদার্থবিদ্যার ছাত্রী সঞ্চিতা অঙ্কে ব্যাক পেয়ে ভেঙে চুরে শেষ হতে গিয়েও শেষ হয়না। বাড়ির লোকজন যেন মেয়েকে সুপাত্রস্থ করে বেঁচে যান। আর পাঁচটা বাঙালী মেয়ের মতোই ঘর গেরস্থালি সামলাতে সামলাতে সঞ্চিতার বুক জুড়ে থাকে তার পুত্র সমু। স্বামী অমিয় যেন বুঝেও বোঝেনা তাকে। সংসারের বিষয়ে স্বামীর নির্লিপ্তি, স্ত্রীর প্রতি উদাসীনতা সঞ্চিতাকে দুমড়ে মুচড়ে দেয়। হঠাত ফেসবুকের কবিবন্ধুদের আনুকুল্যে সঞ্চিতা যেন কবিতায় ভর করে উঠে দাঁড়ায় অনেকদিন পর। নতুন নতুন পুরুষ কবিরা আসে তার জীবনে। ক্রাশ হয় মধ্যবয়সী সঞ্চিতার। তার পরেও সমুর জন্য কোচিং ক্লাসে ফিজিক্স পড়ানোর ফাঁকে ফাঁকে সঞ্চিতা নিজেকে নতুন করে আবিষ্কার করতে থাকে। সুনন্দার সুললিত গদ্যে টেনে রেখে যায় শেষ অবধি। অমিয় আচমকা সারপ্রাইজ দেয় সঞ্চিতাকে। সেটা ছিল মধ্যজীবনে সঞ্চিতার কাছে সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত। বাকীটা জানতে গেলে পড়তে হবে সঞ্চিতা চরিত্রের অনুচ্চারিত অভিমান। সুন্দন্দার কবিতা আগে পড়িনি তবে এই বইটির বেশ কয়েকটি কবিতার লাইন মনে রাখার মত।  “তপ্ত দিনে জারুল ছায়ায়, জলের মায়ায় আসবে তুমি?” অথবা  “কিম্বা লজ্জাকথার আঁকন দিতে ইচ্ছে করে” 
 বিষয়ে বৈচিত্র্য নেই হয়ত এই অনুচ্চারিত অভিমানে। তবে সুনন্দা চক্রবর্তীর কাছ থেকে আরো এমন কবিতার লাইন আশা করব ভবিষ্যতে।  
অনুচ্চারিত অভিমান
সুনন্দা চক্রবর্তী
হাওয়াকল
মূল্য ১৫০ টাকা  

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: সর্বসত্ব সংরক্ষিত