হিমাঙ্কের ২০ ডিগ্রি নিচে ২০ বছর বাঁচতে পারে করোনা ভাইরাস

চিনের এক বিখ্যাত এপিডেমোলজি গবেষণা সংস্থা জানিয়েছে নোভেল করোনা ভাইরাস মাইনাস ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ২০ বছর পর্যন্ত বাঁচতে পারে। সেই কারণে সংরক্ষিত মাংস বা অন্য কিছু থেকে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে যে কোনও সময়, আশঙ্কা তাঁদের।

পূর্ব চিনের একটি আলোচনা সভায় বিশেষজ্ঞরা বলেছে, ঠান্ডায় করোনা ভাইরাসের কোনও ক্ষতি হয় না। বরং সেখানে তাঁরা স্বচ্ছন্দে বাঁচতে পারে। হিমাঙ্কের চার ডিগ্রি সেলসিয়াস নিচে কয়েকমাস বাঁচে করোনা ভাইরাস। আর হিমাঙ্কের ২০ ডিগ্রি নিচে সেটি বাঁচতে পারে প্রায় ২০ বছর। চিনের কোভিড ১৯ বিশেষজ্ঞ দলের সদস্য লি লিনজুয়ান এমনই দাবি করেছেন।

তিনি বলেছেন, অনেক সময়েই বাজারে, জমাট বাঁধা সি ফুড, বরফে রাখা মাছ মাংস থেকে এটি সংক্রমিত হয়েছে এমন অভিযোগ এসেছে। তার কারণ একটিই, দীর্ঘসময় বলেও অতিরিক্ত ঠান্ডার কারণে করোনা ভাইরাসের আয়ু বেশ কিছুটা বেড়ে গিয়েছে। তাই তিনি চিনা প্রশাসনকে বলেছেন, বিশেষত আমদানি করা জমাট বাঁধানো খাবার বা ফ্রোজেন ফুডের বিষয়ে সতর্ক হতে। বিশেষত স্যামন মাছের মাধ্যমে এই ভাইরাস যাতে সংক্রমিত না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে।

এদিকে বেজিংয়ে সোমবারও আরও ন’‌টি নতুন করোনা ভাইরাস সংক্রমণের খবর পাওয়া গিয়েছে। সেই কারণেই বাজারে আরও কড়াকড়ি করেছে চিনা প্রশাসন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত