ভারতে নিষিদ্ধ হয়ে গেল ইলেকট্রনিক সিগারেট

শহরের তরুণ প্রজন্ম ই-সিগারেটের দিকে ঝুঁকছে এমন কারণ দেখিয়ে ই-সিগারেট (ইলেকট্রিক সিগারেট) নিষিদ্ধ ঘোষণা করলো ভারত। আজ নরেন্দ্র মোদী সরকারের পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। এই সিদ্ধান্তে তামাক-লবি ও সিগারেট সংস্থাগুলোর জয় হলো বলে মনে করা হচ্ছে।

ভারতে নিষিদ্ধ হয়ে গেল ইলেকট্রনিক সিগারেট। বুধবার দিল্লিতে একটি ক্যাবিনেট মিটিংয়ে এই ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। ই-সিগারেট তৈরি, আমদানি, বিক্রি বা বিজ্ঞাপন করা, সবই এখন থেকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

প্রধানত তরুণ প্রজন্মই আকৃষ্ট হয়ে পড়ছে এই ই-সিগারেটের প্রতি। ই-সিগারেটের বিজ্ঞাপনেও বলা হচ্ছে যে এই সিগারেট কম ক্ষতিকর। তবে গবেষণা বলছে, উলটোটাই ঠিক। সাধারণ সিগারেটের চেয়ে কোনও অংশে কম নয় ই-সিগারেটের ক্ষতি। আর মার্কেটিং পদ্ধতি এবং বিভিন্ন ফ্লেভারের প্রডাক্ট তৈরি করে তরুণ প্রজন্মকেই টার্গেট করছে ই-সিগারেট প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি।

নভেম্বর থেকে চালু হতে চলেছে ই-সিগারেটের নিষেধাজ্ঞা। ধরা পড়লে শাস্তি হবে ছ’মাসের জেল, ৫০,০০০ টাকা জরিমানা অথবা দুটোই।

 

 

 

 

 

মন্তব্য করুন




আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত