রানুকে ফ্ল্যাট দিচ্ছেন সলমন খবর ভুয়ো বলছেন ঘনিষ্ঠরা

Reading Time: < 1 minute

রানাঘাটের রানু মণ্ডল। ইন্টারনেট দুনিয়ার নতুন সেনসেশন। সম্প্রতি তাঁকে দিয়ে নিজের পরবর্তী ছবি ‘হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হীর’-এর ‘তেরি মেরি কহানি’ গানটি গাইয়েছিলেন বলিউড গায়ক হিমেশ রেশমিয়া। সেই গানও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল।

এই গান ভাইরাল হওয়ার পর একটি খবর ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে। সেখানে বলা হয়, এই গান গাওয়ার জন্য রানু মণ্ডলকে ছয়-সাত লক্ষ টাকা দিতে চেয়েছিলেন হিমেশ রেশমিয়া। কিন্তু এই খবরের কোনও ভিত্তি নেই বলে জানিয়েছেন অতীন্দ্র চক্রবর্তী। অতীন্দ্রই রানুর প্রতিভাকে সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে রানাঘাট স্টেশন থেকে পৌঁছে দিয়েছেন বিশ্বের দরবারে। তাঁর মাধ্যমেই রানুর সঙ্গে যোগাযোগ করছেন হিমেশ রেশমিয়া থেকে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিরা।

বর্তমানে অতীন্দ্রর সঙ্গে রানু রয়েছেন মুম্বইয়ে। সেখান থেকে অতীন্দ্র আনন্দবাজারকে বলেছেন, ‘‘গান গাওয়ানোর জন্য হিমেশ রানুকে টাকা দিয়েছেন— এ খবর সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।’’ তিনি আরও বলেছেন, ‘‘হিমেশ রেশমিয়ার মতো এক জন গায়ক রানুকে বলিউড ছবিতে প্লেব্যাক করার সুযোগ দিয়েছেন। নিজের প্রতিভাকে তুলে ধরার এত বড় একটা প্ল্যাটফর্ম পেল রানুদি। এটাই সব থেকে বড় কথা। টাকা পয়সার প্রসঙ্গে এখানে আসেই না।’’

শুধু তাই নয়, গত কাল থেকে সর্বভারতীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে ভাসছে আরেকটি খবর। সেখানে বলা হচ্ছে, বলিউড স্টার সলমন খান তাঁর পরবর্তী ছবি ‘দাবাং-৩’-এর একটি গান গাওয়াবেন রানুকে দিয়ে। কিন্তু সলমন খানের তরফে এখনও পর্যন্ত এ ধরনের কোনও প্রস্তাব আসেনি বলে বুধবার বিকালে আনন্দবাজার ডিজিটালকে জানিয়েছেন অতীন্দ্র।

সলমন খান রানু মণ্ডলকে ৫৫ লক্ষ টাকার ফ্ল্যাট দিচ্ছেন বলে যে খবর ছড়িয়েছে তাতেও বিরক্ত তিনি। অতীন্দ্র বলেছেন, ‘‘সলমন খানের ফ্ল্যাট দেওয়ার খবর ভুয়ো।’’ এ ব্যাপারে বাজারে ছড়িয়ে পড়া ভুয়ো খবরকে ব্যঙ্গ করে অতীন্দ্র বলেছেন, ‘‘রানুদির পকেটে এখনও পাঁচ টাকা নেই। আর লোকে মজে ৫৫ লাখের গল্পে।’’

সূত্র: আনন্দবাজার

         

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

You may use these HTML tags and attributes:

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>