তিনটি কবিতা

সম্পর্ক
উড়ন্ত তুবড়ির পথে ঘুরন্ত পৃথিবীর খোঁজ।ঈশ্বর কৃষ্ণ গহ্বর ছেড়ে গিটারটা চাঁদের রোদে রেখেছেন। চাঁদ সুষমা ছড়াতে গিয়ে ভুলে গিয়েছে বাসর রাতের কথা। লবণাক্ত ঝোলে দুফোঁটা টিকটিকি পড়েছিল।ঈশ্বর রোদ ঝেড়ে গিটার কাঁধে তুলে নিয়েছেন একবার চাঁদ আর একবার কৃষ্ণ গহ্বরের নাব্যতা মাপছেন।
Irabotee.com,irabotee,sounak dutta,ইরাবতী.কম,copy righted by irabotee.com
কপিপেষ্ট
ও সোনামুখ বল কেমন হবে মৃত্যু যাপন
কেমন হবে অমন বাঁচা সাঁতরে সাঁতার আচম্বিত
নিশিপালন।
আমি আমার দিকভ্রান্ত চতুর্দিক অষ্টরম্ভার
ও সোনামুখ তুই বল দিকবলয়ের গোলশূন্য
হাহাকার।
মরতে মরতে বেঁচে উঠি বৈঠা ভেঙ্গে আঁধার গড়
বিদ্ধহল জল জামানায় তীক্ষ্ণ বড় শক্তিশেল
সুরতহাল।
 মানুষের হাজারটা ভাঙ্গ এমন করে ভাঙ্গতে থাক গাড়ির কাঁচে নীল জার্সিতে ইন্দুবিন্দু লেখালেখি
কপিপেষ্ট।
Irabotee.com,irabotee,sounak dutta,ইরাবতী.কম,copy righted by irabotee.com
দূর্ভিক্ষের নদী
সূর্যের বাঁকা নদীটি সন্ধের মুখে ঘুমচোখ হাঁস
ঝিরিমিহি নিরিচুপি কথা বলে টিলার গাছালি
টিলাপাহাড় আদিম অন্ধকার মৃত্যুর ডাক
গাছে গাছে লেগে আছে শবের গন্ধ 
একাদশী কাক লালচোখা চাঁদ খেতে উড়ে যায়
পাহাড় কোমরে বাঁক তুলে মরাপচা নাচ
গাছের গা ছেড়ে সব শব নেমে আসে 
নিমরাত দূর্ভিক্ষ জোছনায়
সে ভয়ংকর রাত অবিকল বর্ণনা —
হাঁসের বুক উবু হয়ে বসে আছে সহস্র শব
খুঁটে খুঁটে সারারাত নাড়িভুড়ি মাংস খায়দায়
বাতাসে হাঁসের পালক ওড়ায়
Irabotee.com,irabotee,sounak dutta,ইরাবতী.কম,copy righted by irabotee.com

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত