নতুন জিপিএস প্রযুক্তি ভারতীয় ক্রিকেট দলে

Reading Time: < 1 minute

৩০ মে থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ। প্রতিটা দলই এখন ক্রিকেটারদের ফিটনেসের দিকে বাড়তি নজর দিচ্ছে। ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টও এখন ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়ে বাড়তি নজর দিচ্ছে। তাই এবার কোহলি, ধোনিদের জন্য আসছে জিপিএস প্রযুক্তি। প্লেয়ার লোড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম- নামক এই প্রযুক্তি এর আগে কোনও ক্রিকেট খেলিয়ে দেশ ব্যবহার করেনি। বিশ্বের নামি দামি ফুটবল ক্লাবগুলো এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে। তবে ক্রিকেটে ভারতীয় দলই প্রথম এই প্রযুক্তির ব্যবহার করবে।

ক্রিকেটারদের ফিটনেসের চূড়ান্ত পর্যায়ে রাখার জন্য এমন প্রযুক্তির ব্যবহার করা হবে। এই প্রযুক্তির সাহায্যে বিভিন্ন শারীরিক ক্ষমতা যেমন গতি, দূরত্ব, কাজের পরিমাণ ইত্যাদি মাপা যাবে। এই যন্ত্র থেকে যে পরিসংখ্যান পাওয়া যাবে সেটি কাজে লাগিয়ে ক্রিকেটারদের ওপর থেকে বাড়তি চাপ কমানো সম্ভব হবে। চোট লাগার প্রবণতাও কমানো যাবে বলে জানানো হয়েছে। তা ছাড়া ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়েও বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করা যাবে।

ফাস্ট বোলারদের ক্ষেত্রে এই প্রযুক্তি দারুণ কাজে লাগতে পারে বলে মনে করছে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। সাধারণত ফাস্ট বোলারদের ধকল বেশি যায়। ফিটনেসের ক্ষেত্রে বাড়তি খেয়াল রাখতে হয় ভুবনেশ্বর কুমার, জসপ্রিত বুমরাদের। পেসারদের ক্ষেত্রে চোট প্রবণতাও বেশি। জিপিএস প্রযুক্তি ব্যবহার করে দেখা যাবে কোন ক্রিকেটার মাত্রাতিরিক্ত পরিশ্রম করে ফেলেছেন। তখনই তাঁকে বিশ্রামে পাঠানো হবে।

ক্রিকেটারদের জার্সিতে হাই রেজুল্যুশন চিপ বসানো থাকবে। জিপিএসের সাহায্যে তাঁদের শারিরীক চালচলন নির্ণয় করা হবে। স্ট্যাটস্পোর্টস নামক এক সংস্থার থেকে এই প্রযুক্তি কিনেছে বিসিসিআই। সংস্থাটি ব্রাজিল, ইংল্যান্ড, জার্মানি এবং পর্তুগালের মতো ফুটবল দলগুলোকেও এই প্রযুক্তি দিয়ে সাহায্য করে।

    .সূত্রঃ জিনিউজ            

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

You may use these HTML tags and attributes:

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>