বেজিংয়ের বাজারে করোনা সংক্রমণ

ফের চিনে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত! এ বার একেবারে রাজধানী বেজিংয়ের হোলসেল মার্কেট বা পাইকারি বাজারে করোনা আক্রান্ত মিলল৷ যার নির্যাস, বেজিংয়ে যুদ্ধকালীন জরুরি অবস্থা জারি করা হল৷ কিছু এলাকা লকডাউন ঘোষণা করে দিল চিন সরকার৷

বেজিং-এর ফেংতাই জেলার প্রশাসনিক আধিকারিক চু জুনওয়েই জানিয়েছেন, বেজিংয়ের শিনফাদি হোলসেল মার্কেটে ৫১৭ জনের লালারসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল৷ তার মধ্যে ৪৫ জনের নমুনায় করোনা ভাইরাস পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে৷ সঙ্গে সঙ্গে বেজিংয়ের সব খেলাধুলোর ইভেন্ট, আন্তঃপ্রদেশ পর্যটন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ শুক্রবার ৬ জন করোনা আক্রান্ত রোগী বেজিংয়ের শিনফাদি মার্কেট গিয়েছিলেন৷

এই ঘটনার পরে চিনে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রমাদ গোনা শুরু হয়ে গিয়েছে৷ গত ডিসেম্বরে উহানের সি-ফুড মার্কেটে প্রথম করোনা ভাইরাস সংক্রমণ দেখা দেয়৷ তারপর কিছুদিনের মধ্যেই তা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে৷

শিনফাদি মার্কেটে এর আগে গরু ও খাসির মাংস বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল প্রশাসন৷ করোনা ভাইরাস আক্রান্তের খোঁজ মিলতেই গোটা বাজারটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে৷ শুক্রবার ১৮ জনের দেহে করোনা ভাইরাস পাওয়া যায় চিনে৷ তার মধ্যে ৭ জনের কোনও উপসর্গ নেই৷ এর মধ্যে ৬ জনই বেজিংয়ের৷

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত