শুভ জন্মতিথিতে তীর্থতল

Reading Time: 2 minutesকবি ও সাংবাদিক নওশাদ জামিলের জন্ম ১৯৮৩ সালের ১ মে, ময়মনসিংহের ভালুকায়। ইরাবতী পরিবার এই শুভক্ষণে নওশাদ জামিলকে জানায় জন্মতিথির শুভেচ্ছা ও নিরন্তর শুভকামনা। কবিতাগুচ্ছঃ তী র্থ ত ল ১ ব্যথা নিয়ে এতদূর এসে ফিরে যাব? আলিঙ্গনে কাঁপে যদি তোমার ভ্রুভঙ্গি, তবে ঢেউয়ে ঢেউয়ে রেখে যাব কালতিয়াসার গান। তুমি তো ইশারা, মুহূর্তের উপচেপড়া তরী। প্রেমে নয়, প্রান্তদেশে ঘিরে আছে জলের প্রবাহ। ঘুরে ফিরে রূপকথা শুনিয়েছ অনেক। আড়ালে ব্যথা দিয়ে, হেসে হেসে চলে যায় গহীনের ঢেউ। তুমি দুঃখ নও, তুমি দিনান্তে ঝাঁপিয়ে ওঠা জলস্রোত, নির্ঘুম শ্রাবণ। ঝুমশব্দে দেখা দাও যদি ভেসে যায় ধরাতল। তবে কেন ডেকেছ আমাকে? এই স্তব এই বাঁধ নিমিষেই ভেঙে যাবে। বালুচর পেরিয়ে পেরিয়ে ঠিকই পৌঁছাবে বার্তা, এমন রোদনক্ষণে তুমি নিশ্চল, নিঃঝুম কেন? মনে কি আসেনি সন্ধ্যাহাওয়া? হাহাকার আছে জানি, তবুও ছুঁয়েছি শীর্ষদেশ। ২ উড়োচুলে ছুঁয়ে যায় সমুদ্রবাতাস। ধীরে ধীরে কাছে এসে, তোমার চাহনি বুঝে মেলে দিই চুম। তুমি হাসো, তাই এই নীলাভ সাগরজুড়ে কাঁপে গোপন শিরার মুদ্রাগুলি। যতদূর ঢেউ যায় ততদূরে, সন্ধ্যার মলিন আভা ছড়িয়ে দিয়েছে বিষফণা। জেগে ওঠো, জাগো। এই ঘূর্ণিচরাচরে মুখ গুঁজে পড়ে আছে প্রতিটি অক্ষর। তুমি আজ ঢেউয়ে ঢেউয়ে ফিরে আসা ঘ্রাণ, বেদনার পাতা। স্মৃতির ঝলক থেকে জাগো, বেঁচে ওঠো বৃষ্টিজল। ধুয়েমুছে লিখে দেব প্রেম। শাপগ্রস্ত দিন যায়, রাতগুলি নিজেকে নিহত করে। মৃতু্য নয়, শুধু শিখরে জ্বালাও অন্ধ আর্তনাদ। বৃত্ত নয়, যেন আদর পরিধি ঘিরে আছে সরোবরে। সাড়া দাও প্রসারিত হাতে, আজ প্রেম হোক মনের প্রাঞ্জল। ৩ কড়া নেড়ে ডাক দিই আপন আঁধার। রাতদিন ডাকি, যেন আর্তনাদ। তুমি আজ উঠবে কী জেগে? তখনো নীলাভ জলে শিখিনি সাঁতার। ডুবে ডুবে দিয়েছি সঞ্চার, পুষ্পধাম। তুমি ভিজে গিয়ে ফের শুকিয়ে নিয়েছ রক্তবীজ। খরা নয়, সুড়ঙ্গের পাশে ছিল জলাধার, বাগানের মোহিনীবিলাস। গন্ধ পেয়ে যদি ছুটে যাব, তবে কেন সিঁড়িমুখে রয়েছি দাঁড়িয়ে। এইখানে এসে, উঠবে কী জেগে? সুড়ঙ্গে ভীষণ তাপ। গলে গিয়ে ফের ভাঁজে ভাঁজে ঘিরে ধরে শামুকেরা। কণ্ঠনালি পেঁচিয়ে পেঁচিয়ে নিয়ে যায় চূড়ার উপরে। মৃতু্য ভেবে, নীল ভেবে ছড়িয়ে পড়েছে নিমপাতা। এই সন্ধ্যার কুহকে ভেসে যায় আপস্নুত চুম্বন। তীরে কয়েকটি বক, সমুদ্রফেনার ছড়াছড়ি, তুমি ভাসবে কি নীলে?            

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

You may use these HTML tags and attributes:

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>