ট্রেন্ডিংয়ের শীর্ষে ফেসবুক ‘অবতার’

আপনি কি ফেসবুকের অবতার? থুড়ি, মানে আপনি কি এই জনপ্রিয় সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে নয়া অবতারে ধরা দিয়েছেন? না দিয়ে থাকলেও নিশ্চয়ই ইতিমধ্যে নানা ‘অবতারে’র দর্শন পেয়েছেন। কারণ এই অবতার হওয়ার বিষয়টিই এখন ট্রেন্ডিং শীর্ষে।

বিষয়টা একটু খোলসা করে বলা যাক। ফেসবুক খুললেই এখন চোখে পড়বে বিভিন্ন ধরনের কার্টুন। না, টেনিদা কিংবা টিনটিনের কার্টুন এই সোশ্যাল সাইটে আচমকা ফেরত আসেনি। তবে আপনার লুক কার্টুন আকারে ঠিক কেমন হতে পারে, সেটাই এবার দেখিয়ে দেবে ফেসবুক। পদ্ধতিও অত্যন্ত সহজ।

দেশজুড়ে লকডাউনের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ার রমরমা। শুধু যুবপ্রজন্ম কেন, আট থেকে আশির দিনের অনেকটা সময়ই কাটে এই প্ল্যাটফর্মে। আর এই সুযোগে মাথাচাড়া দিয়েছে নানা চ্যাটিং কিংবা ভিডিও কলিং অ্যাপ। প্রতিযোগিতার এই বাজারে তাই ইউজারকে নতুন কিছু দিতে মরিয়া মার্ক জুকারবার্গের কোম্পানিও। ইউজাররা যাতে কখনওই একঘেয়ে অনুভব না করে, তার জন্য প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ফিচার আনছে ফেসবুক। তবে এবারের ফিচারটি দারুণ মনে ধরেছে ইউজারদের। ভারচুয়াল ওয়ালই তার প্রমাণ। অনেকেই নিজেদের ছবি বদলে ফেলেছে কার্টুনে। হয়ে উঠেছে নয়া অবতার। এবার প্রশ্ন হল, কীভাবে অবতার হবেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক।

avatar

১. স্মার্টফোন থেকে ফেসবুক খুলুন। এবার হোমপেজের উপরের ডানদিকের মেনু বারটিতে ক্লিক করুন।
২. একাধিক অপশনের সঙ্গে আসবে See More অপশনটিও। সেটিতে ক্লিক করলেই উপরের দিকে দেখতে পাবেন ‘Avatar’।
৩. এবার অবতারে ক্লিক করলে নতুন পেজ খুলে যাবে। যেখানে নিজের পছন্দ মতো কার্টুন ফেস বেছে নিতে পারবেন। তার চোখ, নাক, ঠোঁট, চুল, ভ্রু, গোঁফ- সবই নিজের ইচ্ছে মতো সাজিয়ে নিন।
৪. পছন্দসই পোশাকও পরিয়ে দিন। দোহারা কিংবা স্থূলকায় চেহারা- যা আপনার পছন্দ, সেটাই বেছে নিন। ইচ্ছা করলে টিপও পরিয়ে দিতে পারেন।
৫. ব্যাস, আপনার নয়া অবতার তৈরি। এবার সেটি প্রোফাইল ছবি হিসেবেও পোস্ট করতে পারেন। আবার ইমোজি হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন।

অর্থাৎ প্রত্যেকের নিজস্ব ইমোজি থাকবে, ফেসবুকে। আর এই বিষয়টিই আকৃষ্ট করছে ইউজারদের। এখনও ‘অবতার’ না হয়ে থাকলে এই ট্রেন্ডে একবার গা ভাসিয়ে দেখতেই পারেন।

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত