মোদিজি কি সেনা বলে বির্তকে যোগী আদিত্য নাথ

Reading Time: < 1 minuteপাকিস্তানের বালাকোটে ভারতীয় বিমানবাহিনীর অভিযানের পর থেকেই বোঝা গিয়েছিল এবারের লোকসভা নির্বাচনে এই ইস্যুকে হাতিয়ার করতে চলেছে ভারতের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি)। তার প্রমাণও মিলেছে। খোদ মোদিই বিভিন্ন নির্বাচনী প্রচারে জাতীয়তাবাদের পালে হাওয়া দিচ্ছেন। কিন্তু সেটা করতে গিয়েই উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী বিতর্কে জড়ালেন। ভারতীয় সেনাবাহিনীকে তিনি বললেন ‘মোদীজি কি সেনা’। উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদে নির্বাচনী জনসভায় যোগী আদিত্যনাথের এ মন্তব্যের পরই আক্রমণ শানিয়েছে বিরোধীরা। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের মন্তব্য, ‘সেনা সবার।’ দেশটির প্রধান বিরোধী রাজনৈতিক দল কংগ্রেস বলছে, এটা ‘সেনাবাহিনীর অপমান।’ গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় ভারতের আধা সামরিক পুলিশ বাহিনীর (সিআরপিএফ) গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলা চালায় পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ। তার পর থেকেই জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে যুদ্ধের আবহ তৈরি হয়। পরে ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের বালাকোটে ঢুকে অভিযান পরিচালনা করে ভারতীয় বিমানবাহিনী। এই অভিযানকে নির্বাচনী প্রচারে হাতিয়ার করেছে বিজেপি। সোমবার গাজিয়াবাদে একটি নির্বাচনী প্রচার সভায় গিয়েছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী। সেখানেই বালাকোটে বিমানবাহিনীর হামলা নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে বসেন। তিনি বলেন, ‘কংগ্রেসের নেতাকর্মীরা জঙ্গিদের বিরিয়ানি খাওয়ায়। আর মোদির সেনা বোমা আর গুলি দেয় সন্ত্রাসীদের। কংগ্রেস আজহার মাসুদের মতো জঙ্গির সঙ্গে জি লাগিয়ে কথা বলে। আর মোদীর নেতৃত্বে সেই আজহারের ঘাঁটিই বোমা ফেলে ধ্বংস করা হয়। এটাই পার্থক্য।’ স্বাভাবিকভাবেই যোগীর বক্তব্যকে ভালোভাবে নেয়নি বিরোধীরা। ফুঁসে উঠেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার বক্তব্য, ‘এ ভাবে নির্লজ্জের মতো সেনাকে নিজের বলে মনে করা আসলে ভারতীয় সেনাবাহিনীকেই অপমান করা।’ তিনি বলেন, ‘ভারতীয় সেনাকে নিয়ে আমরা গর্বিত। ওরা সবার জন্য। দেশের মানুষ এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে এবং এই মন্তব্য প্রত্যাখ্যান করবে।’ যোগীর রাজ্যে এলাহাবাদের নাম পাল্টিয়ে করা হয়েছে প্রয়াগরাজ। ফৈজাবাদ জেলার নাম করা হয়েছে অযোধ্যা। সেনার ‘অপমান’র পাশাপাশি কংগ্রেস আবার খোঁচা দিয়েছে যোগীর নাম পরিবর্তনের অভ্যাস নিয়েও। টুইটারে কংগ্রেসের জাতীয় মুখপাত্র প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদীর কটাক্ষ, ‘এবার ইন্ডিয়ান আর্মির নাম পাল্টে মোদি কি সেনা করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী আদিত্যনাথ। এটা সেনবাহিনীর অপমান। ওরা ভারতের সেনা। প্রচার সর্বস্ব মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়। আদিত্যনাথকে ক্ষমা চাইতে হবে।’ সূত্রঃ আনন্দবাজার  

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

You may use these HTML tags and attributes:

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>