| 2 মার্চ 2024
Categories
কবিতা সাহিত্য

একগুচ্ছ কবিতা

আনুমানিক পঠনকাল: < 1 মিনিট
১.
থমকে থাকা নীলের মতো দিন,
রোদ-রাঙানো ব্যথার মতো তুই,
ডুবতে থাকা ক্লান্তিতে এই আমি,
তোর দু’চোখে মাদুর পেতে শুই।
২.
তোর চোখের তারায় বৃষ্টিফোঁটার মায়া,
তোর চোখের মাঝে মেঘলা আকাশ থাকে,
তোর চোখের দিকে তাকিয়ে আমি হারাই,
আমার বুকের ভেতর মেঘ গুড়গুড় ডাকে।
৩.
মা কয়েছিলেন, সর্বংসহা হও!
তাই মাটির সকল গুণ করেছি ধারণ।
পোড়াও, উড়াও, খোঁড়ো যত খুশি,
শুধু গভীর জলে মন ডোবানো বারণ!
৪.
আজকে আশার ঘোর বরষায়
ভিজব রোদে এই হরষে,
পহেলা আষাঢ় তোর ভরসায়
সিক্ত হবো তার পরশে।
৫.
তুমি আমার বন্ধু হবে আকাশ?
একটুখানি আমায় দেবে নীল?
আমার চোখে মেঘমাখানো জলে,
এসো, বানাই আকাশনীলা ঝিল।
৬.
দুপুররোদে ধুলোয় মাখা
রাস্তাটা তো একলা থাকে,
ঘামতে থাকা চোখের পাতায়
আমারও যে একলা লাগে।
৭.
ঘুণপোকা চুপি চুপি
খেয়ে যায় হৃদয়-প্রকোষ্ঠ,
তবু জপ করে যায়
তোর নাম মন একনিষ্ঠ।
৮.
কোনো এক আকাশজোড়া রাতে
চাঁদ-তারাদের সাথে,
কুড়িয়ে পেলাম ছিন্ন হৃদয়
বিষন্ন প্রভাতে।
৯.
চিঠি, তোমার প্রেরক কোথায়?
মন খারাপের দেশে?
চিঠি, তোমায় পড়ছে প্রাপক
লেখক ভালোবেসে।
১০.
জানলায় চোখ রাখা
রাত-দিন অবিরাম,
কেউ নেই দুই চোখে
এই ছিল বিধিবাম!

 

 

 

 

 

 

 

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

error: সর্বসত্ব সংরক্ষিত