Onkiter Budbud BY Yashodhara Ray Chaudhuri

ঐশ্বর্য্যময় এক কল্পবিজ্ঞান সংকলন ‘অঙ্কিটের বুদবুদ’

Reading Time: 3 minutes
Onkiter Budbud BY Yashodhara Ray Chaudhuri
“শ্রুত্বা গ্রামান্তরে অহং ভালো বটে সিরিনী সত্যনারায়ণস্য
গত্বা তারাতিহর্ষাদাটখানি বাতাসা পাইলামবশেষে
রাত্রৌ তীব্রান্ধকারে চোখে কিছু দেখিনা ঘা গুঁতা খাই কপালে
ভুক্ত্বা খেদান্বিতো হং ফিরে আসি বাড়িতে বৌ বলে কে রে কিলা রে “
সিন্নি লোভী বটকৃষ্টর গ্রামান্তরে গিয়ে আটখানি বাতাসা লাভ ও অন্ধকারে বাড়ি ফিরে গৃহিনীর চোর সন্দেহে তাড়না। এই অর্ধপক্ব শ্লোক নাকি এক কল্পবিজ্ঞান কাহিনীর অংশ! (স্পয়েলার হয়ে যাবে বলে গল্পটা বলছিনা।) কয়েক বছর আগে এক শারদ সংখ্যায় পড়ে হেসে হেসে অস্থির হয়েছিলাম, আর যে নির্মল আনন্দ পেরেছিলাম তার সঙ্গে তুলনীয় কেবল ঘনাদা কাহিনীর রামভুজের ‘কি হৈল বাবু মাগুর মাছের ঝোল খাইবেন না’ এবং ‘ মাগুর মাছের ঝোল খাবো আমি!’ প্রসঙ্গ। ভালো কল্পবিজ্ঞানকে কিন্তু উৎকৃষ্ট সাহিত্য হতে হবে। তা না হলে কল্পবিজ্ঞান পড়ে এক প্রজন্মের বেড়ে ওঠার আশা বৃথা! যশোধরা যশস্বী কবি, তাঁর গদ্যের হাত মারকাটারি রকমের ভালো। কল্পবিজ্ঞান লেখক পিতার বিজ্ঞানমনস্কতায় যুক্ত হয়েছে তাঁর নিজের পাঠ ও প্রতিভা। ‘অঙ্কিটের বুদবুদ’ বইটির উন্মোচনের সময় উপস্থিত ছিলাম না বলে মনে যে ঈষৎ দু:খ ( মিশ্রিত ঈর্ষাও) ছিল , একদিন ঝলমলে বাতাসের মতো বইটি লেখক এসে উপহার দেওয়ায় মন ভালো হয়ে গেল। নানা পত্র পত্রিকায় লেখা গল্পগুলির মধ্যে লিখনশৈলী আর বিষয় বৈচিত্র্যের মহাভোজ। ‘কল্পবিজ্ঞানের সঙ্গে আমার আশ্চর্য সম্পর্কগুলো প্রসঙ্গে ‘ নামের ভূমিকায় যশোধারা লিখেছেন ” যে কবিতা লেখে তার কল্পনা শক্তিই আরও একটু ছড়িয়ে গেলে কল্পবিজ্ঞানের মহল্লায় বিস্তার পায়। পণ্যায়িত দুনিয়ার যন্ত্রায়িত প্রাণহীন জীবনের ওপরে টিপ্পনি দেওয়ার পাশাপাশি আমার কলমে কল্পবিজ্ঞান অস্বাভাবিক কিছু না বরং খুবই প্রাঞ্জল , অর্গানিক।”এই কথাগুলো সত্যি তো অবশ্যই কিন্তু বিজ্ঞানমনস্কতার সঙ্গে কল্পনা ও সাহিত্য মেলানোর ক্ষমতা সবার থাকেনা। হয়তো আমি নিজে কল্প বিজ্ঞান লিখিনি বলে আমার মনে এর রহস্য পুরোপুরি উন্মোচিত নয়। ‘জানালা’ বলে একটি গল্প আছে সংকলনে। ‘নৈয়ায়িক বটকৃষ্ট ‘ যিনি লিখতে পারেন, তিনিই লেখেন ‘জানালার’ মত গভীর এক মনস্তাত্বিক গল্প যা মানব সভ্যতার ক্রূরতাকে চ্যালেঞ্জ করে, স্মৃতিহীন অস্তিত্ব থেকে নীরজার বেরিয়ে আসার গ্রহণ প্রতিজ্ঞার মধ্যে দিয়ে। কেবল কল্প বিজ্ঞান নয, গল্পটি এক অসামান্য উচ্চতায় পৌঁছেছে মুক্তিকামী মানুষের আত্ম অন্বেষণে ।যশোধরার ভাবনা চিন্তা বিভিন্ন গল্পে বিভিন্ন গল্পে নানা মাত্রা পায়। রোবোদের মানুষ সদৃশ আচরণ, তাদের উপর মানুষের নিয়ন্ত্রণ আবার মানুষের আবেগ নিয়ে তাদের ফিরে আসা সবই এই কল্প অভিযানের নানা দিক।’ হরিহর বাবু ও সেই রোবো’ র মত নির্মল হাসির গল্প কিন্তু শেষ কথা নয় — ‘মাঠের আড্ডা’ র মত এত মন ভোলানো, মন কেমন করানো, একে বারে ছোটদের জন্য এক মায়া ভরা গল্প — হারানো শৈশবের জন্য কতখানি মায়া থাকলে লেখা সম্ভব হয়! গল্পগুলি ভাবায়, ভোলায়, চিন্তাশক্তিকে বাড়িয়ে দেয়, আর মনে আনে ভালো সাহিত্য পাঠের অনাবিল আনন্দ। সূর্যশেখরের ধাঁধা গল্পটি অন্যরকম। যতটা বিজ্ঞান কল্পনা , তার চেয়ে বেশি বিজ্ঞান সাধনা নিয়ে দূরে চলে যাওয়া এক মানুষের নিজের কালে , নিজের মানুষের কাছে ফেরার চেষ্টা।
ছ’টি অনুবাদ গল্প এই সংকলনে রেখে পাঠকের খুব উপকার করেছেন যশোধরা। এগুলি একসঙ্গে পাওয়া এক সৌভাগ্য। তাছাড়া, যশোধরার অনুবাদ গল্পগুলিকে মৌলিক গল্পের স্তরে নিয়ে গেছে। সি এল মূর এর ‘দ্য ব্রাইট ইলিউশন’ এর অনুবাদ ‘উজ্জ্বল বিভ্রম’ গল্পটি যেমন। উপন্যাসোপম দীর্ঘ কাহিনীটি যেন এক ত্রিমাত্রিক জগতের মধ্যে দিয়ে যাত্রার চলচ্ছবি। অনুবাদ কাজ হিসেবে অসামান্য আবার সাহিত্যের দর্শন হিসেবেও।
এক সর্ব নিয়ন্ত্রক ঈশ্বরের জগতে, দীক্ষণ অলৌকিক বিচরণের মধ্যে প্রেমে আকৃষ্ট হয় এক নারীর, যার রূপ মানুষীর নয়, বরং এক সরীসৃপ জাতীয় কিছুর, কিন্তু দীক্ষণ চলে যাচ্ছে রূপ থেকে অরূপে—-তখন এসে দাঁড়ান সেই ভিন্নলোকের ঈশ্বর। একটু উদ্ধৃত করি—
“ এই প্রেম, যা তাদের যুক্ত করেছে, দুটি এত বিজাতীয় ভিন্ন অস্তিত্ব কে, তা তাদের জীবন শেষ হবার সঙ্গেই নিবে যেতে পারেনা। এ অনেক মহান, অনেক চমৎকার, ঢের ঢের বেশি শক্তিশালী ।ওর(দীক্ষণের) মধ্যে আর কোনও অনিশ্চিতি বোধ ছিলনা, ভয় ছিলনা, আশা শুধু ওকে তীব্র ভাবে উত্তেজিত বিচলিত করছিল। পরে কী আছে? ওপারে? কোনও বিশাল অস্তিত্ব? কোনও নক্ষত্রগামী অভিযাত্রা? অস্থির অধৈর্য হয়ে সে মৃত্যুর কিনারে অপেক্ষা করতে লাগল।”
মহাবিশ্বের বিশালতম মানচিত্রটি প্রকাশ হওয়ার প্রায় এক সময়ে আমাদের হাতে এসে পৌঁছেছে ‘অঙ্কিটের বুদবুদ’ এর মত এক বিস্ময়কর বই। কালোত্তর সভ্যতা, পৃথিবী -উত্তর বিশ্বলোক কে নিয়ে এই আমাদের উৎসবের সময়!
অঙ্কিটের বুদবুদ
যশোধরা রায়চৌধুরী
কল্পবিশ্ব পাবলিকেশনস
মূল্য: ৩৫০ টাকা

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

You may use these HTML tags and attributes:

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>