তৈমুর খানের তিনটি কবিতা

সম্পর্ক

………………

 

আমিও পুরোনো শব্দের কাছে আসি

উলঙ্গ হই

সব ইন্দ্রিয় মরে গেলেও চৈতন্য মরে না

জেগে থাকে নিশিরাত, একাকী মুহূর্তগুলি

 

কথা ও কথার সূর্য সব ডুবে যায় একে একে

তবু আঁধারে খেলা পাতি

ইচ্ছা গড়াই রোজ কুসুমের কাছে

কথা নেই, কথা নেই আর — তবু মনে হয় কথা আছে

 

উলঙ্গ হই

বিষাদ আমাকে দ্যাখে

তার সঙ্গেই শয্যা পাতি

কেউ আর অবৈধ ভাবে না

আমরা চৈতন্যের ঘরে আছি

 

সংসারী নই তবুও সংসার হয়

পুরোনো সম্পর্কগুলি এভাবেই বাঁচে ।

 

মৃত সম্রাট

…………………………….

 

রোজ মুকুট পরছি

রোজ ঘোষণা করছি

তবু ক্যামন চুপচাপ দ্যাখো

বাতাসও কেঁপে উঠছে না

 

গৃহিণী চুড়ি ভেঙে ফেলছে

উনুন নিভিয়ে দিচ্ছে

আলতার শিশি উল্টে দিয়ে

চলে যেতে চাইছে সোজা

 

আমি দূরে দাঁড়িয়ে দেখছি নিজেকে

মৃত এক পুরুষ

মৃত এক সম্রাট

 

পুরোনো প্রেমিক

…………………………………..

 

কত তির বিঁধে আছে বুকে

তবুও নতুন আলোর গানের কাছে

সুর চাইতে এসেছি

সব ক্ষত ঢেকে আবার জ্যোৎস্নায়

কিছুটা উপশম চেয়েছি

 

ওদের বারান্দায় নেমেছে কত সাদা পাখি

রোদের সুস্পষ্ট উচ্চারণগুলি তাদের ঠোঁটে ঠোঁটে স্বরলিপি

গড়ে যাচ্ছে শূন্যতায়, উচ্ছ্বাসে

 

ভোরবেলার দিকে কোনও নক্ষত্রের কাছে

নিজের জাগরণ লুকিয়ে

এখনও লজ্জানত আমি

 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত