রানুর মন্তব্য বেফাঁস জানালেন তাঁর ঘনিষ্ঠরা

রানাঘাটের রানু মন্ডল আজ বলিউডে পৌঁছে গিয়েছেন একটি ‘ভাইরাল’ ভিডিওর দৌলতে। স্টেশনে অতীন্দ্র চক্রবর্তীর তোলা ভিডিওই সোশাল মিডিয়ায় হইচই ফেলে দিলেছিল। আর তাঁর দৌলতেই রাতারাতি জনপ্রিয় হন এই ‘লতাকণ্ঠী’। তারপরে বিভিন্ন রিয়্যালিটি শোয়ের অতিথি থেকে হিমেশ রেশমিয়ার ছবিতে প্লে ব্যাক, যাত্রাপথটি কারও অজানা নয়। কিন্তু সবকিছু একসঙ্গে ভাল কি হয়? তাই রানুও এবার কটাক্ষের শিকার হলেন সোশাল মিডিয়ায়।
সম্প্রতি আরও একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে নেটপাড়ায়। সেখানে রানুকে জিজ্ঞেস করা হচ্ছে অতীন্দ্র সহ আরও তিনজনের কথা যাঁরা তাঁকে সামলে রেখেছেন, রানাঘাট থেকে মুম্বই। অতীন্দ্রদের মতো মানুষের দৌলতেই তো তিনি এত জায়গায় গান গাওয়ার ডাক পাচ্ছেন, তাদের নিয়ে কী বলবেন? রানু বললেন, ”আমি ভগবানের সাহায্যে যাচ্ছি, আর এরা প্রত্যেকে ভগবানের চাকর।” আর এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই নেটিজেনদের সমালোচনার শিকার রানু।
কিন্তু কী বলছেন রানুর সঙ্গে থাকা আরও ঘনিষ্ঠরা। যারা আগলে রেখেছেন তাঁকে নিরন্তর। এমনই একজন মিঠু। এদিন মিঠুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ”সেদিন ওনার মেয়ে এসেছিল বাড়িতে। আমরা সেই নিয়েই ব্যস্ত ছিলাম। এতদিন খোঁজ রাখেনি হঠাৎ সেদিন কী করতে আগমন তা নিয়ে কথা চলছিল। এই অস্বস্তির পরিবেশেই কেউ তাঁকে প্রশ্নটা জিজ্ঞেস করেছেন। আসলে তখন শব্দচয়নে ভুল করে ফেলেছেন রানু। ‘ভগবানের দূত’ বলতে গিয়ে ‘চাকর’ বলে বসলেন।”
 
যদিও মানসিক ভারসাম্যহীনতার কথাও বলেছেন তিনি। মিঠুর কথায়, ”রানুকে নিয়ে এখন অনেক ভুয়ো কথাও শুনতে পাচ্ছি। কেউ বলছেন সলমন খান তাঁকে বাড়ি দেওয়ার কথা বলেছেন, বা কোথাও শুনছি হিমেশ রেশমিয়া নাকি পারিশ্রমিক হিসাবে ৫ লক্ষ টাকা দিয়েছেন। এরকম কোনও তথ্য কিন্তু আমাদের কাছে নেই।”
 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত