সুখী দেশ ফিনল্যান্ড

বিশ্বের সবচেয়ে সুখী দেশ হিসেবে টানা দুইবারের শীর্ষ রয়েছে ফিনল্যান্ড। তবে ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্টের এ সূচকে প্রতিবেশি দেশ ভারত, শ্রীলঙ্কা ও মিয়ানমারের চেয়ে এখনও অনেক এগিয়ে আছে বাংলাদেশ।

বুধবার বিশ্ব সুখী দিবস উপলক্ষে জাতিসংঘ ২০১৯ সালের সুখী-অসুখী দেশের তালিকা প্রকাশ করে।

২০১৮ সালের এ জরিপে বাংলাদেশ ১১৫তম সুখী দেশ থাকলেও এ বছর তালিকায় স্থান হয়েছে ১২৫তম।অন্যদিকে বাংলাদেশের চেয়ে পিছিয়ে থাকা ভারতের অবস্থান ১৩০তম এবং শ্রীলঙ্কার অবস্থান ১৪০তম।

পাকিস্তান বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে। তারা ৬৭তম অবস্থানে। এছাড়া ভুটান ৯৫তম, নেপাল ১০০তম।

বিশ্বের ১৫৬টি দেশের জনগণের আয়, স্বাধীনতা, বিশ্বাস, গড় আয়ুর সম্ভাব্যতা, সামাজিক সহায়তা এবং উদারতা- এই ছয়টি বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে সুখী দেশের তালিকা প্রণয়ন করেছে জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন সমাধান নেটওয়ার্ক বিভাগ। এসব দেশের ২০১৬ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত সময়ের বিভিন্ন তথ্য বিশ্লেষণ শেষ এবারের রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে।

এ তালিকায় শীর্ষে রয়েছে বেশির ভাগই ইউরোপিয় দেশ। আর তালিকাটিতে সবচেয়ে অসুখী বা সুখী দেশের একদম তলানিতে অবস্থান (১৫৬তম) করছে আফ্রিকা মহাদেশের দক্ষিণ সুদান।

তালিকাটিতে ফিনল্যান্ডসহ শীর্ষ ১০ এ রয়েছে- ধারাবাহিকভাবে ডেনমার্ক, নরওয়ে, আইসল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, সুইজারল্যান্ড, সুইডেন, নিউজিল্যান্ড, কানাডা এবং অস্ট্রিয়া।

দক্ষিণ সুদানসহ সূচক অনুযায়ী বিশ্বের সবচেয়ে অসুখী ১০টি দেশ হলো- মধ্য আফ্রিকা (১৫৫), আফগানিস্তান (১৫৪), তানজানিয়া (১৫৩), রুয়ান্ডা (১৫২) ইয়েমেন (১৫১), মালাউই (১৫০), সিরিয়া (১৪৯), বতসোয়ানা (১৪৮) এবং হাইতি (১৪৭)।

২০১৩ সাল থেকে জাতিসংঘ ২০ মার্চকে বিশ্ব সুখী দিবস হিসেবে পালন করে আসছে। একইসঙ্গে ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্টও করে আসছে। এ বছরের তালিকায় ৯৫তম অবস্থান দখল করেছে বিশ্ব সুখী দিবস পালনের প্রস্তাবকারী দেশ ভুটান।

সূত্রঃ টাইমস

 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত