প্রয়োজন এক লক্ষ কোটি গাছ

বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে বরফ গলছে অত্যন্ত দ্রুত, বাড়ছে সমুদ্রের জলের স্তর। এভাবে চলতে থাকলে খুব তাড়াতাড়িই জলের নীচে চলে যাবে সারা পৃথিবী। এর থেকে বাঁচাতে পারে একমাত্র গাছ।

মোটে ১০০ বছর। তার মধ্যেই বিশ্বের হাওয়া-বাতাস বদলে গিয়েছে ব্যাপক হারে। পরিবেশ হয়ে গিয়েছে ভয়ঙ্কর দূষিত। সেই ১০০ বছর আগের শুদ্ধ বাতাস ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজন এক লক্ষ কোটি বৃক্ষরোপণের। ‘সায়েন্স’ পত্রিকায় প্রকাশিত সুইস ফেডারাল ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির একটি গবেষণায় এমনই ফল পেয়েছেন গবেষকরা।

বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে বরফ গলছে অত্যন্ত দ্রুত, বাড়ছে সমুদ্রের জলের স্তর। এভাবে চলতে থাকলে খুব তাড়াতাড়িই জলের নীচে চলে যাবে সারা পৃথিবী। এর থেকে বাঁচাতে পারে একমাত্র গাছ। অতিরিক্ত দূষণের ফলে বায়ুমণ্ডলে যে প্রচুর গ্রিন হাউজ় গ্যাস জমা হয়েছে, তার ২৫ শতাংশই বেরিয়ে যাবে যদি তাড়াতাড়ি লাগিয়ে ফেলা যায় এই এক লক্ষ কোটি গাছ।

গবেষকরা এটাও জানিয়েছেন যে, পৃথিবীতে এই পরিমাণ গাছ লাগানোর জায়গা কিন্তু রয়েছে। পৃথিবীর স্থলভাগের যতটা নিয়েছে শহর আর গ্রাম, চাষাবাদের জন্য সেই জমিতে যতটা ভাগ বসানো হয়েছে, তাকে হিসেবের বাইরে রেখেও গাছ বসানোর জন্য ৩৫ লক্ষ বর্গ মাইল বা ৯০ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার এলাকা পড়ে রয়েছে পৃথিবীতে।

 

 

 

 

 

 

 

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত