মাঠে নামছে বাংলাদেশ

‘স্বপন যদি মধুর এমন হোক সে মিছে কল্পনা জাগিও না আমায় জাগিও না।’ বাংলাদেশ টিম যদি মান্না দে র এই গানে ডুবে থাকতে চায়ও খুব অযৌক্তিক নয়। সদ্য ত্রিদেশীয় সিরিজের পারফর্মন্সে বাংলাদেশ টিম স্বপ্ন দেখতেই পারে দারুন এক বিশ্বকাপ সূচনার। যদিও সংবাদ সন্মেলনে অধিনায়ক মাশরাফি বলেছেন সাউথ আফ্রিকা এই ম্যাচে ফেভারিট কিন্তু ‘এটাও সত্যি কথা যে আমরা আমাদের সেরা খেলাটা খেলবো। আমরা প্রস্তুতি নিয়েছি, অবশ্যই চাইবো জিততে। আর আমরা কোনো জায়গা থেকেই চাইছি না যে ম্যাচটা হেরে যাই। তবে আবারও বলছি অহেতুক উত্তেজনার কোনো মানে নেই। বিশ্লেষকদের চোখেও আমরা পিছিয়ে। দ্বিপাক্ষিক সিরিজ বা আন্তর্জাতিক, এটাও তাই। খেলোয়াড়দের সেভাবেই প্রস্তুত হতে বলেছি।’

সাউথ আফ্রিকার শুরুটা ভালো হয়নি। নিজেদের বিশ্বকাপ মিশনে প্রথম ম্যাচে ১০৪ রানের বিশাল ব্যবধানে হেরেছে প্রোটিয়ারা। সেই ক্ষতে প্রলেপ দেয়ার জন্য রোববার কেনিংটন ওভালে তাদের প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ। হার দিয়ে শুরু হলেও টাইগারদের বিপক্ষে জয় তুলে বিশ্বকাপ মিশনে সঠিক কক্ষ পথে ফেরার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে চাইবে দক্ষিণ আফ্রিকা। ইংল্যান্ড ম্যাচে আহত হয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছিল হাশিম আমলাকে। বাংলাদেশের বিপক্ষে তাকে নিয়ে শঙ্কায় প্রোটিয়া শিবিরে। সঙ্গে আছে প্রথম ম্যাচে বড় ব্যবধানে হারের জ্বালা। সবদিক মিলিয়ে দলটি বেশ বেকায়দা অবস্থায়।

অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসিস বলেন,‘এটা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে আমরা বিশ্বকাপের দিকে তাকিয়ে আছি। আপনারা জানেন সামনে আমাদের আরো ম্যাচ আছে। আপনাকে মানসম্পন্ন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে জেগে উঠতে হবে। ’
‘তিন বিভাগেই ইংল্যান্ড আমাদের চেয়ে ভাল করেছে। কেন এত ভাল দল সেটা তারা প্রমাণ করেছে এখন আমাদেরকে সামনের ম্যাচগুলোর প্রতি নজর দিতে হবে। এটা লীগ পদ্ধতির টুর্নামেন্ট। কোন ক্ষেত্রে আমরা ভুল করেছি এবং সামনে এগিয়ে যাওয়ার বিষয়টি এখন আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ।’

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার সুশৃংখল বোলিং আক্রমণের কারণে ডু প্লেসিসের বিশ্বাস যে তাদের এখনো অনেক কিছু করার আছে।

ইংল্যান্ড ম্যাচে প্রোটিয়া দলের সফল বোলার ছিলেন লুঙ্গি এনগিডি। দশ ওভার বোলিং করে তিন উইকেট শিকার করেন তিনি। যার মধ্যে ছিল ধ্বংসাত্মক জস বাটলারের উইকেটটিও।

আরেক পেসার কাগিসো রাবাদাও দুই উইকেট শিকোর করে নিজের মেধার পরিচয় দিয়েছেন এবং ডুপ্লেসিসের বিশ্বাস এ কারণে বাংলাদেশ চাপে থাকবে।

‘তিনি বলেন, ‘ লুঙ্গি চমৎকার এ্যাকশনে ছিল। যেভাবে সে ফিরেছে (মন্থর শুরু) সেটা ছিল খুবই সুন্দর। আপানি জানেন জস বাটলারকে আউট করা মানে সম্ভবত সে বিশ্বের সেরা স্ট্রাইক বোলার।’

অন্যদিকে ২০১৫ সালে ঘরের মাঠে ওয়ানডে সিরিজ প্রোটিয়াদের বিপক্ষে জয়ের স্মৃতি, সাম্প্রতিক জয়গুলোর আত্মবিশ্বাস হাওয়া যোগাচ্ছে বাংলাদেশের পালে। ম্যাচের আগে একটা চাপা উত্তেজনা টাইগার সমর্থকদের মাঝে। তাছাড়া বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে ওয়েস্ট ইন্ডিজসহ ত্রিদেশীয় সিরিজে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় মানসিকভাবে বেশ চাঙ্গা আছে বাংলাদেশ দল। এ ছাড়া এই কার্ডিফেই দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর সুখ স্মৃতিও আছে দলটির।

গত মঙ্গলবার ভারতের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে পরা অধিনায়ক মাশনাফি বিন মর্তুজা এ ম্যাচের আগেই ফিট হয়ে উঠবেন বলে আশা করা হচ্ছে। ভারতের বিপক্ষে না খেলা ওপেনিং ব্যাটসম্যান তামিম ইকবালও সুস্থ।

.

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত