করোনার চিকিৎসায় আশার আলো ওষুধ ‘অ্যাভিফ্যাভির’

করোনার চিকিৎসায় এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে শক্তিশালী এবং কার্যকরী ওষুধের প্রয়োগ শুরু হয়ে গিয়েছে। বৃহস্পতিবার থেকেই রাশিয়ার হাসপাতালগুলিতে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় প্রয়োগ করা হচ্ছে রুশ বিজ্ঞানীদের তৈরি ওষুধ ‘অ্যাভিফ্যাভির’ (Avifavir)।

রাশিয়ায় এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লক্ষ ছাড়িয়েছে। করোনায় মৃতের সংখ্যাও সাড়ে ছয় হাজারের বেশি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তাই পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, রাশিয়ার RDIF এবং ChemRar গ্রুপ সে দেশের হাসপাতালগুলিতে পৌঁছে দিয়েছে প্রায় ৬০ হাজার ডোজ ‘অ্যাভিফ্যাভির’। ‘অ্যাভিফ্যাভির’ (Avifavir)-এর সাহায্যে করোনা রোগীদের চিকিৎসাও শুরু হয়ে গিয়েছে। বিজ্ঞানীদের আশা, আগামী দিন চারেকের মধ্যেই ‘অ্যাভিফ্যাভির’ করোনা আক্রান্তদের প্রয়োগের ফলাফল হাতেনাতে পাওয়া যাবে।

এই ওষুধকে করোনার চিকিৎসায় এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে শক্তিশালী এবং কার্যকরী বদে দাবি করার পিছনে রুশ বিজ্ঞানীদের যুক্তি হল, মাত্র চার দিনের মধ্যেই ‘অ্যাভিফ্যাভির’ ৬৫ শতাংশ করোনা রোগীকে সম্পূর্ণ সারিয়ে তুলেছে। মাত্র ১০ দিনের মধ্যে ৯০ শতাংশ করোনা রোগীকে সম্পূর্ণ ভাইরাস মুক্ত করতে সক্ষম হয়েছে এই ওষুধ। এ যাবৎ কালের হিসাবে এটাই সবচেয়ে সফল ভাবে ও দ্রুততার সঙ্গে রোগীদের করোনা-মুক্ত করতে সক্ষম হয়েছে। জাপানে সংক্রামক জ্বরের প্রতিষেধক ফ্যাভিপিরাভির-এর রাসায়নিক সমন্বয়ে কিছু পরিবর্তন ঘটিয়ে এই ‘অ্যাভিফ্যাভির’ (Avifavir) তৈরি করেছেন রুশ বিজ্ঞানীরা।

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত