অবরোহণ

টগবগিয়ে ফুটছি কোথাও
রাতের পালায় পাহারাদারি
তোমার কাপে জুড়িয়ে নিতে
গরম চায়ে তুমুল চুমুক
তৃপ্তি পুড়ছে একটা তালু
জিহবা মাড়ি গজদন্ত
ক্বচিৎ বাস্প উড়ন্ত শিস
রুচির মত একেকটা ঠোঁট।

কোনো ওজর আপত্তি নেই
গড়িয়ে কেবল নামব নীচে
যেমন নামে মদিরাদ্রবণ
পুঞ্জ মায়ামেঘের টোকা-
মাথায় পাঠায় শরীর ওড়ায়
নির্বিবাদী অবাধ পতন;
গভীর গোপন আঁধার ঘনায়
নেভার আগে জ্বলতে জ্বলতে
দেখার নেশায়, আশায় আশায়।

মধুর বাস্প উড়ন্ত শিস
রুচির মত দুফোঁটা ঠোঁট।।

মন্তব্য করুন



আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বসত্ব সংরক্ষিত